in ,

ইভ্যালির এমডি’র দায়িত্ব পেলেন মাহবুব কবির মিলন

নিজস্ব প্রতিবেদক: সরকারের আলোচিত অতিরিক্ত সচিব মাহবুব কবির মিলনকে ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালির ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। সরকারি বেতনে তিনি এই দায়িত্ব পালন করবেন।

দায়িত্ব পাওয়ার বিষয়টি জুমবাংলাকে নিশ্চিত করে মাহবুব কবির মিলন জুমবাংলাকে বলেন, ‘আমরা বিশ্বাসের জায়গাটা তৈরি করবো যাতে করে ই-কমার্স সঠিক পথে এগোতে পারে। শুরুতেই ইভ্যালির কোন টাকা কোথায় গেছে এবং গ্রাহক ও পণ্য সরবরাহকারীদের তথ্য যাচাই-বাছাই করে দেখবো সেখানে কোনও ঘাপলা আছে কি-না। এজন্য প্রয়োজনে রাসেল সাহেবের সাথে কথাও বলা হবে।’

রিটকারীর আইনজীবী ব্যারিস্টার সৈয়দ মাহসিব হোসেন জানান, কাজের প্রতি কমিটমেন্ট দেখে আদালত উনার সঙ্গে কথা বলেছেন এবং ইভ্যালির পরিচালনা কমিটিতে রেখেছেন।

এর আগে পাঁচ সদস্যের কমিটিতে তাঁকে রাখার বিষয়ে হাইকোর্টের বিচারকও বলেছেন, মাহবুব কবিরের সঙ্গে কথা হয়েছে। কাজের প্রতি তাঁর আগ্রহ দেখে খুব ভালো লেগেছে।

মাহবুব কবির সর্বশেষ রেলপথ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব ছিলেন। রেল বিভাগের নানা অনিয়ম দূর করতে নতুন নতুন উদ্যোগ নিচ্ছিলেন। গত বছরের ৬ আগস্ট তাকে বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওএসডি) করা হয়। মাহবুব কবীর এর আগে বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। কিছু সময়ের জন্য ছিলেন কর্তৃপক্ষের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানও। এ সময় তিনি খাদ্যে ভেজাল ও নানা অনিয়মের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিয়ে আলোচিত হন।

আজ (১৮ অক্টোবর) ইভ্যালি পরিচালনায় পাঁচ সদস্যের অন্তবর্তীকালীন বোর্ড গঠন করে দিয়েছেন হাইকোর্ট। এই কমিটির প্রধান করা হয়েছে আপিল বিভাগের সাবেক বিচারপতি এ এইচ এম শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিককে।

বোর্ডের অন্য সদস্যরা হলেন- স্থানীয় সরকার ও পল্লী উন্নয়ন বিভাগের সাবেক সচিব মোহাম্মদ রেজাউল আহসান, মাহবুব কবির মিলন, চার্টার্ড অ্যাকাউন্টেন্ট ফখরুদ্দিন আহম্মেদ ও সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার খান মোহাম্মদ শামীম আজিজ।

গত ১২ অক্টোবর বিচারপতি মুহাম্মদ খুরশীদ আলম সরকারের হাইকোর্ট বেঞ্চ ইভ্যালি পরিচালনার জন্য কমিটি করে দেওয়ার কথা বলেন। এ বিষয়ে বুধবার (১৩ অক্টোবর) হাইকোর্টের আদেশ দেওয়ার কথা ছিল। পরে আদেশের দিন পেছানো হয়।