এমপিকে বিধবা মায়ের সোনার আংটি উপহার!

জুমবাংলা ডেস্ক : একেই বলে অকৃত্রিম হৃদয় নিংড়ানো ভালোবাসা। গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার খোদেজা বেগম গড়লেন অন্যরকম ভালোবাসার দৃষ্টান্ত। তিল তিল করে জমানো টাকা দিয়ে সোনার আংটি বানিয়ে সেটি নিজের সন্তানদের দেননি, কোনো আত্মীয়স্বজনকেও না। দিয়েছেন সংসদ সদস্য ইকবাল হোসেন সবুজকে। এ ঘটনা ছড়িয়ে পড়লে রীতিমতো এই নারীকে নিয়ে প্রশংসার ঝড় বয়ে যায়। বিধবা খোদেজা বেগমের মাতৃতুল্য ভালোবাসায় বুঁদ হয়ে যান নেটিজেনরা।

জানা গেছে, শ্রীপুরের গাজীপুর ইউনিয়নের বন মল্লিকা আদর্শ গুচ্ছগ্রামে বসবাস স্বামীহারা খোদেজা বেগমের। পাঁচ মেয়েকে নিয়ে তাঁর সংগ্রামী জীবন। গত বুধবার (১৪ জুলাই) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রেরিত ঈদ উপহার পৌঁছে দিতে সরকারি ওই আশ্রয়ণ প্রকল্পে গিয়েছিলেন সাংসদ ইকবাল হোসেন সবুজ। এ সময় খোদেজা ছুটে এসে সবুজের হাতের আঙুলে একটি সোনার আংটি পরিয়ে দেন। এ সময় সেখানে এক আবেগঘন পরিবেশ সৃষ্টি হয়। এ অবস্থা দেখে সবাই উচ্ছ্বসিত হয়ে ওঠেন।

ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন গাজীপুর জেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি শাহ মো. ওমর ফারুক। অভূতপূর্ব ওই দৃশ্যটি নিয়ে আপ্লুত ফারুক বলেন, একজন অচেনা-অজানা মা এভাবে নিরেট ভালোবাসা দেখিয়েছেন, তা সত্যিই অনুকরণীয়। আংটিখানা পরিয়ে দেওয়ার সময় তার চোখেমুখে যে উচ্ছ্বাস দেখেছি তা উপস্থিত সবাইকে আবেগতাড়িত ও আপ্লুত করেছে। পুরো ঘটনাটিকে মনে হলো কোনো ছায়াচিত্র। নির্মল, সুন্দর ও নিষ্পাপ ভালোবাসার কাছে আমরা অনেক সময় হেরে যাই। তেমনই এক অসামান্য উদাহরণ সৃষ্টি করলেন এই মহীয়সী নারী, সংগ্রামী মা।

জানতে চাইলে ইকবাল হোসেন সবুজ বলেন, এই মা এর আগে গাজীপুর শহরে আমার বাসায় এসে একবার দেখা করে আংটি উপহার দিতে চেয়েছিলেন। তাকে খুশি করতে আংটিটা হাতে কিছুক্ষণ রেখে উনার আঁচলে বেঁধে দিয়েছিলাম। কিন্তু আজ আর পারলাম না। মায়ের ভালোবাসার কাছে ছেলেকে হারতে হলো।


জুমবাংলানিউজ/এসআর