Views: 283

বিনোদন

কবরীর মৃত্যুতে বিনোদন অঙ্গনে শোকের ছায়া

জুমবাংলা ডেস্ক: করোনায় আক্রান্ত বরেণ্য অভিনেত্রী সারাহ বেগম কবরী (৭০) মারা গেছেন। রাজধানীর শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালে শুক্রবার রাত ১২টার দিকে তিনি মারা যান। তার মৃত্যুতে বিনোদন অঙ্গনে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শোক প্রকাশ করছেন তারকারা।

সুবর্ণা মুস্তাফা

আপনার হাসি, আপনার অভিনয়, আপনার মিষ্টিমুখ- সকল বয়সের শ্রোতাদের মন্ত্রমুগ্ধ করেছে। রূপালি পর্দার সেরা অভিনেত্রী…। আমি কিভাবে আপনাকে বিদায় জানাবো…! দমবন্ধ লাগছে …! শান্তিতে থাকুন কবরী ফুপু।

ফাহমিদা নবী

আজ আর কোন ছবি নয়, মনের ভেতর থাকুক সেই ছবি, যে ছবি চির অমলিন।

কিন্তু এই ছবিটা না দিয়ে পারলামনা।কেমন যেন মায়া আর কষ্ট মাখা আত্মবিশ্বাসী ছবিটা!ছবিটাতে একজন সংগ্রামী, কষ্টকে জয় করা এবং আবার স্বপ্ন দেখবার প্রত্যয়ে নিজেকে তৈরী করবার একজন নতুন সাহসি নারীকে দেখলাম, মনে হলো উনাকে নিয়ে লিখে কিছুটা হারানোর বেদনা ভুলি…. !মিষ্টি মেয়ে “খ্যাত চিত্রনায়িকা কবরী চিরনিদ্রায় চলেই গেলেন!

মনে হচ্ছে অনেক বৃষ্টি হোক, ঝড় হোক
ঝরে যাক অব্যক্ত বেদনা এই ভোর রাতে!
মৃত্যু যার যখন হবে ,তার তখনি চলে যেতে হবে।এ নিয়ে আর কিছু বলবোনা।পবিত্র মাসে
চলে গেলেন..সেটাই ভালো হলো।
আব্বার কথা মনে পড়ছে…..কাঁদতে পারিনা আর………!
কবরী আন্টিকে আমার বকুল ফুল মনে হলো।

জানিনা কেন! বকুল ফুলকে খুব দুখী ফুল মনে হয় সেই ছোটবেলা থেকে। যখনি কুড়াতাম ,তখনি মনে হতো , এই ফুল তো ছেড়া যায়না, বিশাল গাছে ছোট্ট ছোট্ট ফুল।ঝোরে ঝোরে পড়ে ,বৃষ্টি ফোটার মতো। বোধহয় কাদেঁ আর সুখ বিলায়!

শুকিয়ে যায় কিন্তু গন্ধ ছড়াতেই থাকে আজীবন ,কি আশ্চর্য !

তাই বকুল ফুল অন্যরকম প্রিয় দামি সংগ্রামি ফুল আমার কাছে।

যে দুখি ,সেই তো সংগ্রামী

কষ্টের চোখই তো ,এতো মিষ্টি হাসি বহন করতে পারে! আমার কেন যেন তাই মনে হয়েছে তার এই স্হির চিত্রটি দেখে।অনেক যুদ্ধ করেছেন নিজের সাথেই নিজেই বোধহয়! অনেক ক্লান্ত ছিলেন।অনেক বেদনাকে ছাপিয়ে আবার হাঁটতে পথ খুঁজেছিলেন হয়তো!

আপনার স্বপ্নের ছবিটা বানানো হলোনা! থাক, চির নিদ্রায় আপনার আত্মার শান্তি হোক।

আপনার জন্য বকুল ফুলের ভালোবাসা। আল্লাহ আপনাকে জান্নাত দান করুন। আমিন

কনক চাঁপা

আসলেই আর পারছি না! কবরী আপা নেই। ঘণ্টা পাঁচেক আগে দোয়া চেয়ে স্ট্যাটাস দিলাম আর এখনই এটা শুনলাম! এভাবেই আমরা একে একে হারাবো আমাদের প্রিয়জনকে! প্রিয়জন চলে গেলে পাঁজরটাই মনে হয় ভেঙে যায়। আর যদি মোটামুটি নিয়মিত হয় তখন তা সহ্যের বাইরে চলে যায়। আল্লাহ, এই রমজানে চলে যাওয়া মানুষটিকে এবং আরও যারা চলে যাচ্ছেন সবাইকে তুমি দয়া করো।

ওমর সানি

আল্লাহ আপনাকে জান্নাত নসিব করুন।

আঁখি আলমগীর

কবরী আন্টি, ওপারে ভালো থাকবেন। আল্লাহ আপনাকে জান্নাত দান করুন, আমিন।

শাকিব খান

চলচ্চিত্রের যারা পথপ্রদর্শক তারা একে একে চলে যাচ্ছেন। সেই পথে পাড়ি দিলেন আমাদের চলচ্চিত্রের কিংবদন্তি অভিনেত্রী কবরী সারোয়ার আপা। তিনি আর নেই। ইন্নালিল্লাহি ওয়াইন্নইলাহি রাজিউন…

চলচ্চিত্রের প্রাজ্ঞজনের একজন ছিলেন কবরী আপা। তিনি সোনালি অতীতে সমুজ্জ্বল সাক্ষী ছিলেন। সুতরাং, হীরামন, ময়নামতি, চোরাবালি, পারুলের সংসার, বিনিময়, আগন্তুক, সুজন সখী, তিতাস একটি নদীর নাম, নীল আকাশের নিচেসহ অসংখ্য জনপ্রিয় চলচ্চিত্রের নায়িকা ছিলেন কবরী আপা।

অভিনেত্রী পরিচয়ের বাইরে পরিচালনাতেও সুনাম অর্জন করেছিলেন তিনি। পর্দার মিষ্টি মেয়ে হিসেবে খ্যাতি পেলেও ব্যক্তি জীবনে কবরী আপা ছিলেন অত্যন্ত ব্যক্তিত্ববান একজন মানুষ।

কিংবদন্তি এই মানুষটির সাথে আমার অসংখ্য স্মৃতি। যখনই দেখা হতো আমাকে স্নেহ করতেন। তাঁর সময়কার বিভিন্ন স্মৃতি শেয়ার করতেন। কবরী আপার মৃত্যুতে প্রিয় অভিনেত্রী হারানোর পাশাপাশি একজন অভিভাবক হারানোর শোক অনুভব করছি।

যেখানেই থাকুন, ভালো থাকুন কবরী আপা…

জায়েদ খান

কবরী আপা নেই। ভাবতেই কেমন লাগছে।

শফিক তুহিন

বাংলা চলচ্চিত্র ইতিহাসের অন্যতম কিংবদন্তী অভিনেত্রী মিষ্টি মেয়ে খ্যাত কবরী সারোয়ার ইহলোকের মায়া ত্যাগ করেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজেউন)।এদেশ সারাজীবন আপনার ঐতিহাসিক কাজগুলো মনে রাখবে।ওপারে ভালো থাকবেন।

বিজরী বরকতুল্লাহ

বরেণ্য অভিনয় শিল্পী কবরী সারোয়ার রাত ১২টা ২০ মিনিটে এ চলে গেলেন সবাইকে ছেড়ে (ইন্না লিল্লাহে ওয়া ইন্না লিল্লাহী রাজেউন)। তার আত্নার শান্তি কামনা করি। আল্লাহ উনাকে জান্নাতুল ফেরদৌস দান করুন।

বেলাল খান

আমাদের কৈশোর কালের নায়িকা ছিলেন কবরী। মুগ্ধ হয়ে দেখতাম। কী মিষ্টি হাসি তার! শেষ বয়সে এসে রাজনীতিতেও নাম লেখালেন। এমপি হলেন। করোনা আক্রান্ত হয়ে গত কয়েকদিন ধরেই আইসিইউতে মেকানিক্যাল ভেন্টিলেটরে ছিলেন তিনি। আজ চলে গেলেন চিরতরে (ইন্না লিল্লাহে ওয়া ইন্না ইলাইহে রাজেউন।

শাহনাজ খুশি

সব চেষ্টা ব্যর্থ করে চলে গেলেন কবরী আপা! কোথায় যেন একটা আশা ছিল, সবাইকে অবাক করে, আপনি সেই চিরচেনা মিষ্টি হাসি দিয়ে ফিরে আসবেন। কিন্তু এলেন না। শ্রদ্ধা, ভালবাসা। ওপারে শান্তিতে ঘুমান।

বিদ্যা সিনহা মিম

ওপারে আপনি ভালো থাকুন। বিদায় কিংবদন্তি।

জুলফিকার রাসেল

প্রিয় অভিনেত্রী কবরীও চলে গেলেন! আমাদের আকাশে আলো কমে যাচ্ছে!

সিয়াম আহমেদ

অবশেষে ঢাকাই চলচ্চিত্রের অন্যতম সেরা অভিনেত্রী চলচ্চিত্রের ‘মিষ্টি মেয়ে’খ্যাত সারাহ বেগম কবরী চলে গেলেন করোনা আক্রান্ত হয়ে। আমি তার বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করি।

তিমির নন্দী

আর নিতে পারছি না। করোনার কাছে পরাস্ত হয়ে চলে গেলেন সোনালি যুগের প্রিয় মুখ, প্রিয় নায়িকা, শ্রদ্ধেয় কবরী। সৃষ্টিকর্তা আপনার বিদেহী আত্মাকে চির শান্তি দান করুন। বিনম্র শ্রদ্ধাঞ্জলি।

ইমন সাহা

কতো স্মৃতি… কতো আদর, ভালবাসা, শাসন পেয়েছি আপনার কাছ থেকে। ঈশ্বর আপনার আত্মার মঙ্গল করুক আন্টি।

লুৎফর হাসান

পত্রিকায় কাজ করতাম, সেই সতেরো বছর আগে। তিনি বললেন, ‘তুমি কেমন লেখো, আমাকে দেখতে হবে’। আগের কিছু লেখা তাকে দেখালাম। তিনি বললেন ‘শব্দের জোর আছে, বলো কী জানতে চাও’। সে এক দীর্ঘ ইন্টারভিউ। ঈদ সংখ্যার লেখা। ছাপা হওয়ার পর তাকে দিতে গেলাম। আমার সামনেই পড়লেন। বললেন ‘তোমার লেখা দারুণ’। এই আশীর্বাদ আমি যত্নে রাখলাম। বাংলা চলচ্চিত্রের সেরা নায়িকা আজ চলে গেলেন। ভালো থাকবেন আপা।

বুবলী

মৃত্যু সবচেয়ে বড় সত্য কিন্তু এতো অবিশ্বাস্য কেন? আমাদের সবার মৃত্যু হবে জেনেও মানতে ইচ্ছে করেনা কেন? পৃথিবীতে হয়তো এমন অনেক কেনর কোনও উত্তর নেই। ওপারে ভালো থাকবেন কবরী ম্যাডাম। আপনার আত্মার মাগফেরাত কামনা করছি।

সোমেশ্বর অলি

কিংবদন্তির মৃত্যু নেই। কবরী মানে একটা ইতিহাস। আমরা তার ক্ষুদ্র পাঠকমাত্র। আমাদের চোখভরা বিস্ময়… থাক, ‘স্মৃতিটুক থাক’, প্রিয় কবরী আপা…।

Share:



আরও পড়ুন

‘মিস ইউনিভার্স’ হলেন সফটওয়ার ইঞ্জিনিয়ার আন্দ্রেয়া মেজা

mdhmajor

সংগীত পরিচালকের ক্যারিয়ার শেষ করে দেয়ার হুমকি নোবেলের

Shamim Reza

নদীতে মরদেহ ভেসে যাওয়ার ছবি ভারতের নয়, নাইজেরিয়ার : কঙ্গনা

Shamim Reza

নিজের মৃত্যু তারিখ জানালেন নোবেল

Shamim Reza

’ফিট’ থাকতে পারলেন না বাহুবলী নায়িকা আনুষ্কা

Shamim Reza

রণবীর-দীপিকার বিয়েতে ফোন ব্যবহার নিষিদ্ধ ছিল যে কারণে

Shamim Reza