আন্তর্জাতিক বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি স্লাইডার

কম্পিউটার যেভাবে নির্বাচনের ফল নিয়ে বিবিসির প্রতিবেদন লিখলো

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ডেস্ক: যুক্তরাজ্যের প্রতিটি নির্বাচনী এলাকার প্রকাশিত ফলের উপর ভিত্তি করে, প্রথমবারের মত বিবিসি নিউজ এমন একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে যেটি পুরোটাই লিখেছে কম্পিউটার। খবর বিবিসি বাংলার।

মেশিন-জেনারেটেড জার্নালিজম বা যান্ত্রিক উপায়ে সাংবাদিকতার বিষয়ে বিবিসি যত পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালিয়েছে তার মধ্যে এটিই সবচেয়ে বড়।

প্রায় ৭০০ প্রতিবেদনের প্রায় সবগুলোই লেখা হয়েছে ইংরেজিতে। শুধু ৪০টি লিখিত হয়েছে ওয়েলস এর ভাষায়। প্রতিবেদনগুলো প্রকাশের আগে সেগুলো সম্পাদক হিসেবে পরীক্ষা করেছেন একজন মানুষ।

এই প্রকল্পের প্রধান বলেছেন, এই প্রযুক্তির উদ্দেশ্য কর্মক্ষেত্রে মানুষকে প্রতিস্থাপন করা নয়। বরং কাজের পরিসর বাড়ানোই এই প্রযুক্তির মূল লক্ষ্য।

বিবিসি নিউজ ল্যাবের সম্পাদক রবার্ট ম্যাকেঞ্জি বলেছেন, ‘এটি হচ্ছে সাংবাদিকতার সেই দিক, যেটি মানুষের দ্বারা সম্ভব হয় না’।

‘গত রাতে প্রকাশিত প্রতিটি নির্বাচনী এলাকার ফল নিয়ে আমরা, যন্ত্রের সহায়তায়, একটি করে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছি। শুধু, একটি নির্বাচনী এলাকা নিয়ে প্রতিবেদন করা হয়নি কারণ সেখানে তখনো ভোট গণনা শেষ হয়নি। এই কাজটি [মানুষের দ্বারা] আগে কখনই সম্ভব হয়নি।’

তথ্য-উপাত্ত নির্ভর প্রতিবেদনগুলোকে আরো দক্ষতার সাথে করার জন্য বেশ কিছু সংবাদ-প্রতিষ্ঠানই ‘অটোমেটেড জার্নালিজম’ বা যন্ত্রের সাহায্যে স্বয়ংক্রিয় সাংবাদিকতা নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালাচ্ছে।

যে সব বিষয়ে প্রচুর সংখ্যা বা পরিসংখ্যান রয়েছে, যেমন- ফুটবল খেলার স্কোর বা কোনো কোম্পানির অর্থনৈতিক রিপোর্ট বা জাতীয় নির্বাচনের ফল, সেসব বিষয়ে প্রযুক্তির সহায়তায় খুব দ্রুত প্রতিবেদন তৈরি করা যায়।

নির্বাচনী ফলের উপরে ভিত্তি করে রাতারাতি বিবিসি ইংরেজিতে ৬৪৯টি প্রতিবেদন এবং ওয়েলস-এ ৪০টি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

ভক্সহল: যন্ত্র যেমনটি বলেছে

ভক্সহলে সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন ফ্লোরেন্স ইশালোমি। যার অর্থ দাঁড়াচ্ছে, লেবার পার্টি আসনটি পেয়েছে। তবে, তাদের ভোট আগের চেয়ে কমেছে।

নতুন এই এমপি লিবারেল ডেমোক্রেটের প্রার্থী সারা লিউসকে ১৯,৬১২ ভোটে পরাজিত করেছেন। এটি ২০১৭ সালে সাধারণ নির্বাচনে কেট হোইয়ের পাওয়া ২০,২৫০ ভোটের চেয়ে কম।


এই আসনে ভোটের দিক থেকে তৃতীয় অবস্থানে রয়েছেন কনজারভেটিভ পার্টির সারাহ বুল আর চতুর্থ স্থানে রয়েছেন গ্রিন পার্টির জ্যাকুলিন বন্ড। তবে, গত নির্বাচনের তুলনায় এবারে ভোটার উপস্থিতি ৩.৫ শতাংশ কম ছিল।

ব্রিটিশ সাধারণ নির্বাচনে ভোট দেয়ার উপযোগী মোট ৬৩.৫% অর্থাৎ ৫৬ হাজারের বেশি মানুষ বৃহস্পতিবারের সাধারণ নির্বাচনে ভোট দিয়েছে।

ছয় জনের মধ্য থেকে মোট তিন জন প্রার্থী—জ্যাকুলিন বন্ড (গ্রিন), এন্ডু ম্যাকগিনিজ (দি ব্রেক্সিট পার্টি) এবং সালাহ ফয়সাল (ইন্ডিপেন্ডেন্ট) অন্তত ৫ শতাংশ ভোট না পাওয়ায় তাদের জামানত ৫০০ পাউন্ড খুইয়েছেন।

ভক্সহল সম্পর্কে উপরের এই প্রতিবেদনটি স্বয়ংক্রিয় যন্ত্রের সহায়তায় তৈরি হয়।

মি. ম্যাকেঞ্জি বলেছেন, এই প্রতিবেদনটিতে ‘বিবিসি স্টাইল’ এর প্রতিফলন রয়েছে। কারণ, যে ধরণের শব্দ-বন্ধ প্রতিবেদনে ব্যবহার করা হবে সেটি বিবিসির প্রতিবেদকরা আগে-ভাগেই যন্ত্রের মধ্যে প্রোগ্রাম করে রাখতে পারেন।

‘একটি প্রতিবেদনের যত রকমের বিন্যাস বা কোণ থাকতে পারে, সাংবাদিক হিসেবে, তা হয়তো আপনি আগে-ভাগেই ভেবে নিতে চাইবেন।’

তারপর আপনি একটি টেম্পলেট বানাবেন। এরপর নির্ধারিত ডাটা বা তথ্যের সাথে মিলিয়ে নিয়ে সেই যন্ত্র কিছু শব্দ বা শব্দ-বন্ধ বাছাই করে। ফলে, আপনি যা চান তার সবই ‘হাউস স্টাইল’ বা নির্ধারিত নীতি অনুসরণ করে লিখতে পারেন।

বিবিসির বেলফাস্ট, কার্ডিফ, গ্লাসগো ও লন্ডনের সাংবাদিকেরা সংবাদগুলো প্রকাশ করার আগে খতিয়ে দেখেছেন।

মি. ম্যাকেঞ্জির মতে, এই প্রযুক্তির সবচেয়ে বড় সীমাবদ্ধতা হচ্ছে, এটি কোনো বিশ্লেষণ যোগ করতে পারে না। যেমন নির্বাচনী এলাকা ‘কেনিংস্টন’ নিয়ে প্রতিবেদনে সংবাদকর্মীরা আরেকটি প্রয়োজনীয় প্রসঙ্গ এনেছেন।

‘এটি স্পষ্টতই এমন একটি প্রতিবেদন যেটি মূলত উপাত্ত নির্ভর। কিন্তু প্রযুক্তি কাউকে কোনো কিছুর ব্যাখ্যা দিতে পারে না।’ বলছিলেন ম্যাকেঞ্জি।

‘এই প্রতিবেদনগুলোর কোনোটিতে কোনো উদ্ধৃতি বা বক্তব্য নেই। কী হয়েছে বা কোনটি সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ এই বিষয়ক কোনো ব্যাখ্যাও কোনো প্রতিবেদনে নেই। এটি হচ্ছে তথ্য-উপাত্তের উপরে ভিত্তিতে বানানো একটি লিখিত বিবরণ। ফলে, সাংবাদিকতার দৃষ্টিকোণ থেকে এটি একটি বড় নেতিবাচক দিক।

বিবিসি সাংবাদিকতা নিয়ে ইতোমধ্যে বেশকিছু স্বয়ংক্রিয়-সাংবাদিকতার পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালিয়েছে এবং স্থানীয় বেশ কিছু প্রতিবেদন তৈরি করেছে।

‘তবে, সে যাই হোক, মানুষ যন্ত্রের কাছ থেকে ঠিক কী আশা করে তা বোঝাপড়ার ক্ষেত্রে বিবিসি এখনো একেবারেই প্রাথমিক স্তরে রয়েছে’ বলে মনে করেন মি. ম্যাকেঞ্জি।


যাদের বাচ্চা আছে, এই এক গেইমে আপনার বাচ্চার লেখাপড়া শুরু এবং শেষ হবে খারাপ গেইমের প্রতি আসক্তিও।ডাউনলোডকরুন : http://bit.ly/2FQWuTP


আরও পড়ুন

তাঞ্জানিয়ায় শক্তিশালী ভূমিকম্প

azad

খাবার অপচয় বন্ধ করতে চীনে ‘ক্লিন প্লেট’ প্রচারণা

rony

করোনা ছড়ানোর দায়ে মালয়েশিয়ায় ভারতীয় নাগরিকের কারাদণ্ড

rony

তুরস্ক বিরোধ: পূর্ব ভূমধ্যসাগরে সামরিক উপস্থিতি বাড়ালো ফ্রান্স

Shamim Reza

কোরআনের ভালোবাসায় বিয়ে করেননি কারি সামিআ

rony

তুরস্ক-গ্রিস উত্তেজনা: যুদ্ধবিমানসহ রণতরী পাঠাচ্ছে ফ্রান্স

rony