কালকিনিতে গুলি করে এক যুবককে হত্যা

জুমবাংলা ডেস্ক : মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলার ডাসার থানার বালিগ্রামে জমি-জমা নিয়ে বিরোধের জের ধরে সোহাগ মোল্লা (৩৫) নামের এক যুবককে গুলি করে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষ। এমনই অভিযোগ পাওয়া গেছে। হত্যায় ব্যবহৃত বন্দুকসহ অভিযুক্ত হত্যাকারী আহাদকে গ্রেপ্তার করেছে ডাসার থানা পুলিশ। আজ শনিবার (১৭ জুলাই) সকালে কালকিনি উপজেলা বালিগ্রাম ইউনিয়নের বোতলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘ দিন ধরে সোহাগ ও আহাদের পরিবারের মধ্যে জমি-জমা নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। এনিয়ে স্থানীয়ভাবে সালিস করে দুই পক্ষকে জমি ভাগ করে দিয়ে যার যার জমিতে ধান লাগানোর কথা বলা হয়। সালিসে আদেশ পেয়ে মঙ্গলবার সকাল ৬টায় সোহাগদের অংশের জমিতে সোহাগ ধান লাগাতে গেলে আহাদের সঙ্গে কথা কাটি হয়। এসময় আহাদ ক্ষিপ্ত হয়ে নিজের লাইসেন্স করা এক নলা বন্দুক দিয়ে সোহাগকে গুলি করে। এতে গুলিবিদ্ধ হয়ে গুরুতর আহত হয় সোহাগ। স্থানীয়রা দ্রুত আহতকে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে। তার অবস্থা গুরুতর হওয়ায় প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন কর্তব্যরত চিকিৎসক। ফরিদপুর নেওয়ার পথে সোহাগের মৃত্যু হয়।

খবর পেয়ে ডাসার থানা পুলিশ আহাদকে গ্রেপ্তার করে। সেসময় তার কাছ থেকে হত্যায় ব্যবহৃত লাইসেন্স করা (আহাদের নামে) বন্দুকটি উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় ডাসার থানায় একটি হত্যা মামলা হয়েছে। নিহত সোহাগ কালকিনি উপজেলার বালিগ্রাম ইউনিয়নের বোতলা গ্রামের মো. শামচুল হক তালুকদারের ছেলে। আর আহাদ একই এলাকার মৃত আ. হাই মাতুব্বরের ছেলে।

কালকিনি উপজেলার ডাসার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হাসানুজ্জামান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘খবর পেয়ে ডাসার থানা পুলিশ আহাদকে গ্রেপ্তার করে। তার কাছ থেকে হত্যায় ব্যবহৃত লাইসেন্স করা (আহাদের নামে) বন্দুকটি উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় ডাসার থানায় নিহতের বাবা একটি হত্যা মামলা হয়েছে।’


জুমবাংলানিউজ/এসআর