গুলশান-বনানীতে ৬ শতাধিক অবৈধ সাইনবোর্ড উচ্ছেদ

ছবি সংগৃহীত

জুমবাংলা ডেস্ক : রাজধানীর গুলশান, বনানী ও প্রগতি সরণিতে প্রায় ৬২০টি অবৈধ সাইনবোর্ড উচ্ছেদ করেছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) ভ্রাম্যমাণ আদালত।

করপোরেশনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটদের পরিচালনায় বুধবার এসব বিলবোর্ড উচ্ছেদ করা হয়।

এসময় তাৎক্ষণিক নিলামের মাধ্যমে এসব সাইনবোর্ড ও অন্যান্য মালামাল ১ লাখ ৩৯ হাজার ৫০০ টাকায় বিক্রি করা হয়েছে। ফুটপাত ও সড়ক দখল করে ব্যবসা করা, ট্রেড লাইসেন্স না থাকা ও অন্যান্য অপরাধে বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে ৯৭ হাজার টাকা জরিমানাও করা হয়েছে।

গুলশান অ্যাভিনিউয়ে প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবদুল হামিদ মিয়ার নেতৃত্বে প্রায় ২৫৭টি অবৈধ সাইনবোর্ড, বিলবোর্ড, ব্যানার, প্যানাফ্লেক্স ইত্যাদি উচ্ছেদ করা হয়। এ সময় ৩টি প্রতিষ্ঠানকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

বনানী ১১ নম্বর সড়কে অঞ্চল-৭’র আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোতাকাব্বীর আহমেদের নেতৃত্বে উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় দুই শতাধিক সাইনবোর্ড, বিলবোর্ড ইত্যাদি উচ্ছেদ করা হয়। এসব মালামাল তাৎক্ষণিক নিলামে ৬০ হাজার টাকায় বিক্রি করা হয়। এ ছাড়া সড়ক ও ফুটপাত অবৈধভাবে দখল করে জনগণের চলাচলে বিঘ্ন সৃষ্টির কারণে একটি প্রতিষ্ঠানকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

এছাড়া প্রগতি সরণির শাহজাদপুরে অঞ্চল-৬’র আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাজিয়া আফরিনের পরিচালনায় উচ্ছেদ অভিযানে ১৬৩টি সাইনবোর্ড, বিলবোর্ড ইত্যাদি উচ্ছেদ করা হয়। উচ্ছেদ করা এসব সাইনবোর্ড, বিলবোর্ড ইত্যাদি নিলামে ৭৯ হাজার ৫০০ টাকায় বিক্রি করা হয়। এ ছাড়া ফুটপাত ও সড়ক দখল করে ব্যবসা করা এবং ট্রেড লাইসেন্স না থাকায় ৪টি প্রতিষ্ঠানকে ৫৭ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।


জুমবাংলানিউজ/এসএস