in

গোয়েন্দা কর্মকর্তাকে যা বললেন আরিয়ান খান

বিনোদন ডেস্ক : তারকা সন্তান নন, আরিয়ান খানের পরিচয় এখন ‘কয়েদি নম্বর ৯৫৬’। একাধিক বার জামিনের আবেদন করেও আপাতত শাহরুখ-পুত্রের ঠিকানা হাজতের রুদ্ধদ্বার কক্ষ। জিজ্ঞাসাবাদ যেমন চলছে, চলছে কাউন্সেলিংও। অর্থাৎ মনোবিদদের সঙ্গে কথাবার্তা বলছেন আরিয়ান এবং তার সঙ্গীরা।

নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো (এনসিবি) সূত্রে খবর, নিজের ভুল স্বীকার করেছেন আরিয়ান। কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার কর্মকর্তা সমীর ওয়াংখেড়ের সঙ্গে খোলাখুলি কথা বলেছেন ২৩ বছর বয়সি স্নাতক।

প্রসঙ্গত, এই সমীরই মাদক পার্টির খবর পেয়ে ছদ্মবেশে সেই প্রমোদতরীতে উঠেছিলেন। গত দু’বছরে মুম্বাই বিমানবন্দর থেকে ১৭ হাজার কোটি টাকার মাদক বাজেয়াপ্ত করেছে তার দল। সমীরকে আরিয়ান কথা দিয়েছেন, তিনি যা করেছেন, তার পুনরাবৃত্তি আর কখনও হবে না। তিনি বলেছেন, “আমি একদিন এমন কিছু করব, যাতে আপনি গর্বিত হবেন।”

দু’সপ্তাহ ধরে কারাবন্দি আরিয়ান। কোভিডবিধির কারণে মুখোমুখি দেখা করতে পারছেন না মা-বাবার সঙ্গে। ভিডিও কলে শাহরুখ-গৌরীর সঙ্গে কথা বলেছেন। হাজতে বসে তাদের দেখে কান্নায় ভেঙে পড়েছিলেন তিনি। জেলে আরিয়ানের জন্য কোনও বিশেষ বন্দোবস্তও করা হয়নি। বাকি হাজতবাসীদের মতোই দিন কাটছে তার। ২০ অক্টোবর এনডিপিএস আদালতে ফের জামিনের শুনানি হবে তার। সূত্র: আনন্দবাজার।