চালককে গলাকেটে হত্যা করে ইজিবাইক নিয়ে পালিয়ে যায় তারা

জুমবাংলা ডেস্ক: মানিকগঞ্জের সিংগাইরে ইজিবাইকচালককে গলাকেটে হত্যার পর লাশ পেঁপে বাগানের পাশে ফেলে দিয়ে ইজিবাইক নিয়ে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা।

সোমবার সন্ধ্যায় উপজেলার ধল্লা ইউনিয়নের খাসেরচর-ধল্লা সড়কের হঠাৎপুর এলাকায় এ ঘটনার পর ছিনতাইয়ে জড়িত ৩ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

নিহত ইজিবাইকচালকের নাম মো. সোহান মিয়া (১৭)। সে উপজেলার ধল্লা ইউনিয়নের ফোর্ডনগর মোল্লাপাড়া গ্রামের প্রবাসী গোলাম নবীর ছেলে। সোহান ধল্লা ইউনিয়ন কাউন্সিল উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্র ছিল।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সোহান মিয়া প্রতিদিনের মত সোমবার হ্যালো বাইক নিয়ে বাড়ি থেকে বের হয়। তিনজন যাত্রী খাসেরচর বাজার হতে ধল্লা বাজার যাওয়ার জন্য ইজিবাইকটি ভাড়া নেয়। ধল্লা-খাসেরচর সড়কের হঠাৎপুর এলাকার মাঝপথে পেঁপের বাগানের পাশে ফাঁকা চকে চালক সোহানকে গলাকেটে হত্যা করে লাশ ফেলে দেয়। এরপর ইজিবাইকটি নিয়ে তারা ঢাকার দিকে পালিয়ে যায়।

স্থানীয়রা লাশ দেখে পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে সিংগাইর থানার পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মানিকগঞ্জ আধুনিক সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

এ ঘটনায় ওইদিন সন্ধ্যায় সিংগাইর সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার মোহা. রেজাউল হক ও সিংগাইর থানার ওসি শফিকুল ইসলাম মোল্লা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

ঘটনার কয়েক ঘণ্টার মধ্যে সিংগাইর সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার মোহা. রেজাউল হক ও সিংগাইর থানার ওসি (তদন্ত) আবুল কালাম, এসআই রহিম, এসআই আলমগীর, এসআই তরিকুলসহ সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালান। পরে সাভারের তেঁতুলঝোড়া এলাকা থেকে জড়িত তিনজনকে আটক করা করেন। সেই সঙ্গে ছিনতাই হওয়া ইজিবাইকটি উদ্ধার করেন।

এ ব্যাপারে সিংগাইর থানার ওসি শফিকুল ইসলাম মোল্লা বলেন, গ্রেফতারকৃত তিনজন ঘটনার সঙ্গে প্রত্যক্ষভাবে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে।


জুমবাংলানিউজ/এসওআর