জাতীয় পজিটিভ বাংলাদেশ

চায়ের দোকানে দিন কাটিয়ে গভীর রাতের পড়াশুনায় জিপিএ-৫

পিইসিতে জিপিএ-৫ পেয়েছে মো. বিশাল মিয়া। ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর এলাকার সাহেরা গফুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে বিশাল। বাবার সঙ্গে চায়ের দোকানে দিন কাটিয়ে গভীর রাতের পড়াশুনায় তার এ সাফল্য।

রেলওয়ে স্টেশন এলাকায় তার পরিচিত নাম বিশাল। অনেকেই তার এ সাফল্যে অবাক হয়েছে। আগে থেকে জানা থাকা কেউ আবার তাকে পুরস্কার দেবেও বলেছেন। বিশালের ফলাফল জেনে অনেকেই দোয়া করেন।

বিশালের বাবা মো. লিয়াকত মিয়া জানালেন, গ্রামের বাড়ির জেলার আশুগঞ্জ উপজেলার আড়াইসিধা গ্রামে। থাকেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর এলাকার মৌড়াইলে। স্ত্রী, দুই ছেলে ও এক মেয়েকে নিয়ে সংসার। বাড়ি ভাড়া, তিন সন্তানের পড়াশুনার খরচসহ অন্যান্য সাংসারিক ব্যয় মেটানো হয় চা বিক্রির আয় থেকেই। আগে বড় ছেলে ইভান দোকানে থাকতেন। কয়েক বছর ধরেই সঙ্গে থাকে বিশাল। বিকেল পাঁচটার পর এসে বাড়ি ফিরে রাত একটার দিকে। এরপর পড়তে বসে। ডিপ্লোমায় পড়াশুনা করা ছেলে ইভানও আগে এভাবে দোকানে বসতো।

বিশালের জানায়, স্কুলের পাশাপাশি প্রাইভেট শিক্ষক আমেনা আক্তার তানজিনার কাছে পড়তো। এ ছাড়া দোকান থেকে বাড়ি ফিরেও পড়াশুনা করতো। মা কুলসুম বেগম তাকে স্কুল পাঠানো, পড়াশুনা নিয়মিত করার বিষয়ে উৎসাহ দেয়। বড় ভাই, বোনদের কাছ থেকেও উৎসাহ পায়।

বিশালের পিইসির ফলাফল বিবরণী থেকে দেখা যায়, সে ছয়টি বিষয়ের প্রতিটিতেই এ প্লাস পেয়েছে। বাংলায় ৮৫, ইংরেজিতে ৮৭, গণিতে ৮০, সমাজ বিজ্ঞানে ৯০, সাধারন বিজ্ঞানে ৯১ ও ধর্মে ৯৬ নম্বর।

যাদের বাচ্চা আছে, এই এক গেইমে আপনার বাচ্চার লেখাপড়া শুরু এবং শেষ হবে খারাপ গেইমের প্রতি আসক্তিও। ডাউনলোডকরুন : http://bit.ly/2FQWuTP

আরও পড়ুন

দেশে ইন্টারনেট ব্যবহারকারী প্রায় ১০ কোটি

Saiful Islam

সামাজিক দূরত্ব সৃষ্টিতে বড় বাধা চায়ের দোকানে আড্ডা

Saiful Islam

বিসিএস পরীক্ষায় চতুর্থ হওয়া এসিল্যান্ড সাইয়েমার কাণ্ডে লজ্জিত সবাই

mdhmajor

পুলিশ সদস্যদের বিনয়ী হতে বললেন আইজিপি

Saiful Islam

এবার ফ্লোরাকে তুলোধুনা করা সেই নারীর দুঃখ প্রকাশ করে যা বললেন

globalgeek

যেভাবে দিন কাটে সেই পাপিয়ার

Shamim Reza