in ,

ছবি তোলার কথা বলে কাশবনে ডেকে নিয়ে কিশোরীকে ধর্ষণ

জুমবাংলা ডেস্ক : গাইবান্ধার ফুলছড়ি উপজেলার যমুনা নদীর দুর্গম বালুচরের কাশবনে ছবি তোলার কথা বলে এক কিশোরীকে ডেকে নিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত প্রেমিকসহ দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল শনিবার রাতে সাঘাটা উপজেলার ভাঙ্গামোড় এলাকা থেকে তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়।

এর আগে শনিবার রাতে বাদী হয়ে ফুলছড়ি থানায় মামলা করেন ভুক্তভোগী ওই কিশোরীর মা। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন-প্রেমিক মাহবুব রহমান (২১) ও তার বন্ধু পলাশ মিয়া (২০)। তাদের বাড়ি সাঘাটা উপজেলায়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ফুলছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাওসার আলী জানান, গাইবান্ধা শহরের কিশোরীর সঙ্গে সাঘাটা উপজেলার মাহবুব নামের ওই যুবকের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। গত ১৫ অক্টোবর দুপুরে মাহবুব ও তার বন্ধু পলাশ সাঘাটা থেকে গাইবান্ধায় আসে। তারা বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ওই কিশোরীকে ফুসলিয়ে ফুলছড়িতে নিয়ে যায়। সেখান থেকে তারা কাশবনের ছবি তুলতে ফুলছড়ির একটি চরে যায়।

ওই সময় দুর্গম চরের কাশবনে ছবি তোলার সময় প্রেমিক মাহবুব প্রথমে মেয়েটিকে ধর্ষণ করে। পরে তার বন্ধু পলাশও কিশোরীকে ধর্ষণ করে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন মেয়েটিকে উদ্ধার করে বাড়িতে পৌঁছে দেয়।

ঘটনার পর ওই কিশোরীর মা এদিন রাতেই মাহবুব ও পলাশের নামে থানায় মামলা করেন। ইতোমধ্যেই অভিযান চালিয়ে পুলিশ দুই ধর্ষককে গ্রেপ্তার করেছে বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।