ছাত্রীকে আপত্তিকর মেসেজ শিক্ষকের!

আপত্তিকর মেসেজসিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় স্কুলছাত্রীকে আপত্তিকর মেসেজ দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় প্রথমে স্কুল অধ্যক্ষ বরাবর পরে হুমকির মুখে স্থানীয় থানায় ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে অভিযোগ দেওয়া হয়েছে।

জানা গেছে, স্থানীয় এইচ টি ইমাম গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজের ইংরেজি শিক্ষক মো. আসাদুল ইসলাম দীর্ঘদিন ধরে ওই স্কুলের এক ছাত্রীকে ফেসবুকে আপত্তিকর প্রস্তাব দিয়ে আসছিলেন। এক পর্যায়ে ওই ছাত্রী তার বাবাকে বিষয়টি সম্পর্কে অবগত করে। তার বাবা প্রতিকার চেয়ে প্রথমে স্কুলের অধ্যক্ষ মো. সিরাজুল ইসলামের কাছে ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের ভিত্তিতে স্কুর কর্তৃপক্ষ অভিযুক্ত শিক্ষকে ১০ দিনের সময় দিয়ে শোকজ ও কারণ দর্শনের নোটিশ দিয়েছে।

এদিকে অভিযোগ জানানোয়, ওই শিক্ষার্থীর বাড়িতে যেয়ে হুমকি দেয় অভিযুক্ত শিক্ষক। দ্রুত অভিযোগ প্রত্যাহার না করলে বড় ধরনের ক্ষতি করারও হুমকি দেন তিনি। ফলে গত ১৫ জুন ভয়ে ওই শিক্ষার্থীর বাবা উল্লাপাড়া মডেল থানায় একটি জিডি করেছেন।

এদিকে অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে অভিযুক্ত শিক্ষক আসাদুল বলেন, তিনি ফেসবুক ও নেট কম বোঝেন। হয়তো তার আইডি কেউ হ্যাক করে আপত্তিকর এই মেসেজ দিয়েছেন। সেই সাথে ছাত্রীর পরিবারকে হুমকি দেওয়ার বিষয়টিও অস্বীকার করেছেন তিনি।

এ বিষয়ে এইচ টি ইমাম গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ মো. সিরাজুল ইসলাম জানান, শিক্ষার্থীর বাবার অভিযোগ পেয়েছি। অভিযুক্ত শিক্ষক মো. আসাদুল ইসলামকে শোকজ ও ১০ দিনের সময় দিয়ে কারণ দর্শনের নোটিশ দেওয়া হয়েছে। তার ব্যাক্ষ্যা শুনে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

এ বিষয়ে উল্লাপাড়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দীপক কুমার দাস জানান, ওই স্কুলের ইংরাজি শিক্ষক মো. আসাদুল ইসলামের বিরুদ্ধে জিডি হয়েছে । তদন্ত করে ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


জুমবাংলানিউজ/ জিজি