in ,

জামিন পেলেও মুক্তি পাচ্ছে না মডেল পিয়াসা


জুমবাংলা ডেস্ক : রাজধানীর ভাটারা ও খিলক্ষেত থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে করা পৃথক দুই মামলায় আলোচিত মডেল ফারিয়া মাহবুব পিয়াসার জামিন আবেদন মঞ্জুর করেছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার (৩০ সেপ্টেম্বর) ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারক কে এম ইমরুল কায়েশ শুনানি শেষে তার জামিন মঞ্জুর করেন।

এদিন গুলশান, ভাটারা ও খিলক্ষেত থানার পৃথক তিন মামলার তার আইনজীবী জামিনের আবেদন করেন। শুনানি শেষে বিচারক ভাটারা ও খিলক্ষেত থানার দুই মামলায় জামিন মঞ্জুর এবং গুলশান থানার মামলায় জামিন নামঞ্জুর করেন। গুলশান থানা মামলায় জামিন নামঞ্জুর হওয়ায় কারামুক্ত হতে পারছেন না তিনি।

উল্লেখ্য, গত ১ আগস্ট রাতে রাজধানীর বারিধারায় মডেল পিয়াসার বাসায় অভিযান শুরু করে পুলিশ। পরে তাকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডিবি কার্যালয়ে নেওয়া হয়।

এরপর তার বিরুদ্ধে গুলশান, ভাটারা ও খিলক্ষেত থানায় মাদক নিয়ন্ত্রণ আইনে পৃথক তিন মামলা করে পুলিশ। এ মামলাগুলোতে তাকে রিমান্ডে নেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা।

গত ২৭ সেপ্টেম্বর ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে তার বিরুদ্ধে ওই তিন মামলায় চার্জশিট দাখিল করে মামলার তদন্ত সংস্থা সিআইডি।

এর আগে ২০১৭ সালে পিয়াসা নামটি আলোচনায় এসেছিল। উচ্ছৃঙ্খল জীবনযাপন করায় সে বছর তাকে তালাক দেন দেশের প্রথম সারির জুয়েলারি প্রতিষ্ঠান আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদার আহমেদ সেলিমের ছেলে সাফাত হোসেন। এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আলোচিত হন তিনি।

কয়েক মাস আগে রাজধানীর গুলশানের একটি ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার হয়েছে মোসারাত জাহান (মুনিয়া) নামে এক তরুণীর মরদেহ। ঘুরে ফিরে এখানেও আলোচনায় আসে পিয়াসার নাম। এবার ওই তরুণীর বোন নুসরাত জাহান বাদী হয়ে মামলা করেন। মামলার এজাহারে উঠে এসেছে পিয়াসার নাম। এর রেশ কাটতে না কাটতেই আবার আলোচনায় সেই পিয়াসা।