Views: 147

আন্তর্জাতিক

জেলের হুমকি দিয়ে সিরিয়ানদের যুদ্ধ করতে আজারবাইজানে পাঠানো হচ্ছে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ”আমি জানতাম না আমরা যুদ্ধ করতে যাচ্ছি” মেসেজিং অ্যাপের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম বিবিসিকে বলছিলেন আবদুল্লাহ (তার আসল নাম নয়)।

তার সঙ্গে কথা হচ্ছিল ছাড়া ছাড়াভাবে এবং আবদুল্লা খুবই আড়ষ্ট ছিলেন। তিনি ভয় পাচ্ছিলেন একজন সাংবাদিকের সাথে মেসেজ চালাচালি করতে গিয়ে তিনি যদি ধরা পড়ে যান।

“আমাকে ওরা বলেছিল আজারবাইজানে যেতে হবে এবং সীমান্তের চৌকি পাহারা দিতে হবে। আমি দু’হাজার ডলার পাবো,” তিনি বলেন।

”তখন কোন যুদ্ধ চলছিল না, আমরা কোন সামরিক প্রশিক্ষণও পাইনি।”

এই সিরীয় তরুণ জানতেন না এর এক সপ্তাহের মধ্যেই তাকে যুদ্ধে লড়াই করতে হবে, যে যুদ্ধ সম্বন্ধে তার কোন ধারণা নেই এবং যে দেশে সে কখনও যায়নি।

উত্তর সিরিয়ার অধিকাংশ বাসিন্দার মতো আবদুল্লার পরিবারও দরিদ্র এবং যুদ্ধ-ক্লান্ত। সম্প্রতি চালানো এক জরিপে ওই অঞ্চলের উত্তরদাতাদের ৮১%বলেছে তাদের ৫০ ডলারের কম মাসিক বেতনে জীবন চালাতে হয়।


কাজেই আবদুল্লাকে গত সপ্তাহে যখন তার ৪০ গুণ বেশি বেতনের প্রস্তাব দিয়ে বলা হলো এর বিনিময়ে তাকে আজারবাইজান সীমান্তে গিয়ে “সেনা চৌকি পাহারা দিতে”, সে তা লুফে নিয়েছিল।

“তখন তো কোন যুদ্ধ চলছিল না। আমাদের উত্তর সিরিয়া থেকে হউর কেলস নামে এক গ্রামে নিয়ে যাওয়া হলো। সেখানে বিরোধী সিরিয়ান ন্যাশানাল আর্মি আমাদের সব জিনিসপত্র নিয়ে নিলো, অর্থ, ফোন, জামাকাপড় সব। যাতে আমাদের পরিচয় কেউ ধরতে না পারে।”

আবদুল্লা কিছু সময় পরে তার ফোনটা উদ্ধার করতে পেরেছিলেন।

“এরপর আমাদের নিয়ে যাওয়া হলো দক্ষিণ তুরস্কে এন্টেপ বিমানবন্দরে। সেখান থেকে এক ঘন্টা ৪০ মিনিটের ফ্লাইটে আমরা পৌঁছলাম ইস্তানবুল বিমানবন্দরে, সেখান থেকে আজেরি এয়ারলাইন্সের বিমানে আজারবাইজানে পৌঁছে আমাদের সীমান্তে একটা সেনা চৌকিতে নিয়ে যাওয়া হলো। আমাদের কিন্তু কোনরকম সামরিক প্রশিক্ষণ দেয়া হয়নি। ”

আবদুল্লাকে নিয়ে যাওয়া হলো নাগোর্নো-কারাবাখ এলাকায়, যে বিতর্কিত এলাকায় কয়েক দশক ধরে সংঘাত চলছে।

পাহাড়ি ছিটমহলটা আজারবাইজানের অংশ হিসাবে স্বীকৃত, কিন্তু এলাকাটা নিয়ন্ত্রণ করে জাতিগত আর্মেনীয়রা।

দুই দেশ ১৯৮০-এর দশকের শেষে এবং ৯০ দশকের গোড়ায় এই এলাকার দখল নিয়ে রক্তক্ষয়ী যুদ্ধ করেছে। হাজার হাজার মানুষ সংঘর্ষে প্রাণ হারিয়েছে, প্রায় দশ লাখ মানুষ গৃহহীন হয়েছে।

দুই পক্ষ যদিও একটা যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করেছিল, কিন্তু তারা কখনই একটা শান্তি চুক্তিতে একমত হয়নি। ফলে এলাকায় থেকে থেকেই উত্তেজনা মাথা চাড়া দিয়ে উঠেছে। সূত্র : বিবিসি বাংলা।


যাদের বাচ্চা আছে, এই এক গেইমে আপনার বাচ্চার লেখাপড়া শুরু এবং শেষ হবে খারাপ গেইমের প্রতি আসক্তিও।ডাউনলোডকরুন : https://play.google.com/store/apps/details?id=com.zoombox.kidschool



আরও পড়ুন

নিষেধাজ্ঞা দিয়ে ইরানের প্রতিরোধ ভাঙতে ব্যর্থ হয়েছে আমেরিকা : রুহানি

azad

ফ্রান্সে গির্জায় হামলাকারী তিউনিশিয়ার যুবক

mdhmajor

সেনেগাল উপকূলে অভিবাসন প্রত্যাশীদের নৌকাডুবি, ১৪০ জনের মৃত্যু

azad

কানাডা ও নেদারল্যান্ডসের পর ইচ্ছামৃত্যুকে স্বীকৃতি দিল নিউজিল্যান্ড

mdhmajor

ফ্রান্সের গির্জায় হামলার ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানাল সৌদি আরব

mdhmajor

বিশ্বে রেকর্ড ৫ লাখ ৪০ হাজার নতুন করোনা রোগী শনাক্ত

Sabina Sami