in ,

টাঙ্গাইলে প্রথম নারী উপজেলা চেয়ারম্যান নার্গিস বেগম

জুমবাংলা ডেস্ক : টাঙ্গাইলে ১২ টি উপজেলার মধ্যে ভূঞাপুর উপজেলা থেকে প্রথম নারী উপজেলা চেয়ারম্যান হলেন মোছা. নার্গিস বেগম। তিনি জেলার ভূঞাপুর উপজেলা পরিষদের উপ-নির্বাচন নির্বাচনে অংশ নিয়ে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। নার্গিস বেগম সদ্য প্রয়াত উপজেলা চেয়ারম্যান ও বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হালিম এডভোকেটের সহধর্মিণী। এছাড়াও উপজেলা আওয়ামী মহিলা লীগের সভাপতি ও নারী কল্যাণ সংস্থা’র চেয়ারম্যান।

গতকাল সোমবার (১৮ অক্টোবর) রাতে জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং অফিসার এ.এইচ.এম কামরুল ইসলাম তাকে ভূঞাপুর উপজেলা উপ-নির্বাচনে চেয়ারম্যান হিসেবে বিজয়ী ঘোষণা করেন। এর আগে গত ২৭ সেপ্টেম্বর নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়। এতে আওয়ামী লীগের ৪ জন ও বিএনপি’র ১ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র ক্রয় করেন।

গত শনিবার (৯ অক্টোবর) মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন আওয়ীমী লীগ থেকে নার্গিস ছাড়া আর কেউ ভূঞাপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদের উপ-নির্বাচনে মনোনয়নপত্র জমা দেননি। সোমবার (১১ অক্টোবর) যাচাই-বাছাই শেষে এক মাত্র নৌকার প্রার্থী নার্গিসের মনোনয়ন বৈধতা ঘোষণা করেন রিটার্নিং ও জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা এ এইচ এম কামরুল হাসান।

তারআগে ১০ অক্টোবর মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সংসদীয় ও স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি বোর্ডের যৌথসভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ভূঞাপুর উপজেলা পরিষদ উপ-নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত (নৌকা) প্রতীকের প্রার্থী মোছা. নার্গিস বেগম তার মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। এতে অন্যান্য ৪ মনোনয়নপত্র ক্রয়কারী প্রার্থী তাদের মনোনয়নপত্র দাখিল করেননি।

এছাড়াও বিএনপি’র প্রার্থীও মনোনয়নপত্র জমা দেননি। পরে গত ১১ অক্টোবর মনোনয়নপত্র যাছাই-বাছাইয়ে তার মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করা হয়। নিয়মানুযায়ী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত ঘোষণা করতে হলে মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয়। পরে ১৭ অক্টোবর প্রত্যাহারের শেষ দিন ছিল। এতে একমাত্র নৌকা প্রতীকের প্রার্থী হিসেবে নার্গিস বেগম মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার না করায় তিনি উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়।

এ বিষয়ে জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং অফিসার এএইচএম কামরুল ইসলাম বলেন- ভূঞাপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল হালিম এডভোকেট মারা যাওয়ায় চেয়ারম্যান পদটি শূন্য হয়ে যায়। পরে উপজেলায় নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়। ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী ১৭ অক্টোবর মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন ছিল। ওই দিন এক মাত্র প্রার্থী মনোনয়ন প্রত্যাহার না করায় ১৮ অক্টোবর মোছা. নার্গিস বেগমকে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় বিজয়ী ঘোষণা করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর উপজেলা পরিষদের দুই বারের চেয়াম্যান ও বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হালিম অ্যাডভোকেট করেনায় আক্রান্ত হয়ে গত ৩০ জুলাই রাজধানীর শ্যামলীর বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন। পরে নির্বাচন কমিশন চেয়ারম্যান পদটি শূণ্য ঘোষণা করে উপ-নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেন। আগামী ২ নভেম্বর ভূঞাপুর উপজেলা পরিষদের নির্বাচনের ভোট গ্রহণের তারিখ ছিল। কিন্তু নার্গিস আওয়ামী লীগ থেকে নৌকা প্রতীকে একক প্রার্থী থাকায় তিনি প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।