in ,

টানা ৪ বলে চার উইকেট, ইতিহাসের পাতায় আইরিশ পেসার

কার্টিস ক্যাম্ফার

স্পোর্টস ডেস্ক: আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দ্বিতীয় দিনেই আসরের প্রথম হ্যাটট্রিক করে ফেলেন আয়ারল্যান্ডের ডানহাতি পেসার কার্টিস ক্যাম্ফার। শুধু হ্যাটট্রিক করেই থেমে থাকেননি আইরিশ এই পেসার। টানা চার বলে চার উইকেট নিয়ে গড়েছেন ইতিহাস। বিশ্বের প্রথম বোলার হিসেবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে চার বলে চার উইকেট নিয়ে ডাবল হ্যাটট্রিক করলেন তিনি।

নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে ম্যাচে ইনিংসের দশম ওভারে দ্বিতীয়, তৃতীয়, চতুর্থ ও পঞ্চম বলে উইকেট নেয়ার মাধ্যমে এবারের বিশ্বকাপের প্রথম হ্যাটট্রিকের পাশাপাশি চার বলে চার উইকেট নেয়ার বিরল রেকর্ড গড়েছেন ক্যাম্ফার।

ইনিংসের নয় ওভার শেষে নেদারল্যান্ডসের সংগ্রহ ছিলো ২ উইকেটে ৫০ রান। ক্যাম্ফারের অবিশ্বাস্য ওভারের পর তাদের স্কোর দাঁড়ায় ৬ উইকেটে ৫২ রান। এই ওভারে সাজঘরে ফিরেছেন কলিন অ্যাকারম্যান (১১), রায়ান টেন ডেসকাট (০), স্কট এডওয়ার্ডস (০) ও রোয়েলফ ফন ডার মারউই (০)।

সেই ওভারের দ্বিতীয় বলে কট বিহাইন্ড হন অ্যাকারম্যান। রিভিউ নিয়ে তাকে সাজঘরে পাঠায় আয়ারল্যান্ড। পরের দুই বলে লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়েন ডেসকাট ও এডওয়ার্ডস, পূরণ হয় ক্যাম্ফারের হ্যাটট্রিক। ঠিক পরের বলে ইনসাইড এজে বোল্ড হয়ে ডাবল হ্যাটট্রিকের শিকার হন মারউই।

বিশ্বের তৃতীয় বোলার হিসেবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে চার বল চার উইকেট নেয়ার রেকর্ড গড়লেন ক্যাম্ফার। তার আগে লাসিথ মালিঙ্গা ও রশিদ খান করে দেখিয়েছেন এমন কীর্তি। এর মধ্যে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টিতে একবার করে চার বল চার উইকেট নিয়েছেন মালিঙ্গা।

সবমিলিয়ে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে বিশ্বের ২০তম বোলার হিসেবে হ্যাটট্রিক করেছেন ক্যাম্ফার। তবে আয়ারল্যান্ডের প্রথম বোলার হিসেবে কুড়ি ওভারের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এই রেকর্ড গড়লেন তিনি।

এছাড়া ২০০৭ সালের আসরে ব্রেট লি’র পর মাত্র দ্বিতীয় বোলার হিসেবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে হ্যাটট্রিকের নজির দেখালেন এ আইরিশ পেসার। ২০০৭ সালে বাংলাদেশের বিপক্ষে হ্যাটট্রিক করেছিলেন অস্ট্রেলিয়ান কিংবদন্তি ব্রেট লি।