Views: 138

ক্রিকেট (Cricket) খেলাধুলা

ঢাকাকে গুড়িয়ে গাজী গ্রুপ চট্টগ্রামের উড়ন্ত শুরু


স্পোর্টস ডেস্ক : প্লেয়ার ড্রাফট শেষে গাজী গ্রুপ চট্টগ্রামের কোচ মোহাম্মদ সালাউদ্দিন বলেছিলেন, বড় কোনো তারকা না থাকলেও আমাদের দলটা বেশ ব্যালেন্স। তারকাদের পেছনে না ছুটে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে কার্যকর এমন ক্রিকেটারদের দলে ভিড়িয়েছি আমরা। সালাউদ্দিনের কথার প্রতিফলন দেখা গেল প্রথম ম্যাচেই। বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ব্যাটে-বলে দাপুটে ক্রিকেট খেলে বড় জয় পেয়েছে গাজী গ্রুপ চট্টগ্রাম।

বৃহস্পতিবার (২৬ নভেম্বর) তারকাসমৃদ্ধ বেক্সিমকো ঢাকার বিপক্ষে ৯ উইকেটে জিতেছে চট্টগ্রাম। মোস্তাফিজুর রহমান, শরিফুল ইসলামদের দুর্দান্ত বোলিংয়ে ঢাকাকে প্রথমে একশ’র আগেই গুটিয়ে দিয়ে পরে মারকাটারি ব্যাটিংয়ে চট্টগ্রামের সহজ জয় নিশ্চিত করেছেন সৌম্য সরকার।

৮৮ রানের জবাব দিতে নেমে চট্টগ্রামের দুই ওপেনার সৌম্য ও লিটন দাস ওপেনিং জুটিতেই তোলেন ৭৯ রান। লিটন রয়েসয়ে খেললেও সৌম্য শুরু থেকেই ব্যাটে ঝড় তোলেন। ১০.৫ ওভারে যখন চট্টগ্রামের নয় উইকেটের জয় নিশ্চিত হলো তখন মাত্র ২৯ বলে ৪৪ রানে অপরাজিত সৌম্য। বাঁহাতি ক্রিকেটারের ইনিংসে চারের মার ৪টি, ছক্কা ২টি। লিটন ৩৩ বলে ৩ চার ১ ছয়ে ৩৪ রান করে আউট হয়েছেন।


এর আগে বোলিংয়ে জাদু দেখিয়েছে চট্টগ্রাম। টস জিতে প্রথমে বোলিং করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন গাজী গ্রুপ চট্টগ্রামের অধিনায়ক মোহাম্মদ মিঠুন। মিঠুনের সিদ্ধান্ত কতোটা যথার্থ ছিল তা দারুণভাবে প্রমাণ করেছেন চট্টগ্রামের বোলিং আক্রমণে থাকা মোস্তাফিজুর রহমান, শরিফুল ইসলাম, তাইজুল ইসলামরা।

ঢাকার তানিজিদ তামিমকে ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারে ফেরান শরিফুল ইসলাম। কোনো রান না করেই এক বলের ব্যবধানে সাব্বির রহমান ও মুশফিকু রহিম যখন ফিরছিলেন ঢাকার স্কোর তখন ২১/৩।

এরপর যুববিশ্বকাপ জয়ের নায়ক আকবর আলীকে সঙ্গে নিয়ে ঢাকার ওপেনার নাঈম শেখ একটু প্রতিরোধ গড়েছিলন বটে তবে বাকিরা দাঁড়াতেই পারেননি মোস্তাফিজদের সামনে। নাঈম দলীয় ৬৬ রানের মাথায় ২৩ বলে তিনটি করে চার ছয় মেরে ৪০ রান করে ফিরলে তারপর তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়ে ঢাকার ইনিংস। ১৬.২ ওভারে ৮৮ রানেই গুটিয়ে যায় দলটি। ঢাকার পক্ষে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১৫ রান করেন আকবর আলী।

গাজী গ্রুপ চট্টগ্রামের হয়ে দুটি করে উইকেট নিয়েছেন মোস্তাফিজুর রহমান, শরিফুল ইসলাম, মোসাদ্দেক হোসেন ও তাইজুল ইসলাম। অপর দুই উইকেট সৌম্য সরকার ও নাহিদুল ইসলামের। চট্টগ্রামের সব বোলাররাই কম বেশি দারুণ বোলিং করেছেন আজ। তবে ‘আইকন’ মোস্তাফিজুর রহমানের বোলিং হলো চোখে লেগে থাকার মতো।

৩.২ ওভার বোলিং করে ২ উইকেট নিতে মাত্র ১৩ রান খরচ করেছেন বাঁহাতি পেসার। মোস্তাফিজ তার ২০টি ডেলিভারির মধ্যে ১৫টিই করেছেন ডট!


যাদের বাচ্চা আছে, এই এক গেইমে আপনার বাচ্চার লেখাপড়া শুরু এবং শেষ হবে খারাপ গেইমের প্রতি আসক্তিও।ডাউনলোডকরুন : https://play.google.com/store/apps/details?id=com.zoombox.kidschool



আরও পড়ুন

সাবেক বাস্কেটবল তারকার স্টিফেন জ্যাকসনের ইসলাম গ্রহণ

Sabina Sami

নির্ধারিত সময়েই অনুষ্ঠিত হবে টোকিও অলিম্পিক : আইওসি প্রধান

Mohammad Al Amin

তামিমকে ছাড়িয়ে গেলেন সাকিব

Saiful Islam

চেলসির প্রধান কোচের পদ থেকে বরখাস্ত হলেন ল্যাম্পার্ড

Mohammad Al Amin

উইন্ডিজকে হোয়াইটওয়াশ করায় টাইগারদের রওশন এরশাদের অভিনন্দন

mdhmajor

রাতে আজকের খেলা

Mohammad Al Amin