ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লার অংশে চলাচলে স্বস্তি

জুমবাংলা ডেস্ক: রাত পোহালেই ঈদুল আজহা। কোরবানীর ঈদ উপলক্ষে দেশের বিভিন্ন মহাসড়কে গণপরিবহনের তীব্র চাপে থাকলেও ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লার ৯৭ অংশ মহাসড়কে রয়েছে পুরোপুরি ফাঁকা। মহাসড়কের কুমিল্লা অংশে যানজট মুক্ত থাকায় যাত্রীদের চলাচলে কোন প্রকার ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে না। পাশাপাশি পণ্য ও পশুবাহী গাড়িও চলাচল করছে স্বস্তিতে। আজ মঙ্গলবার সকাল থেকে বেলা ১১ টা পর্যন্ত মহাসড়ক ঘুরে এমন দৃশ্যই দেখা গেছে।

এদিকে, ঈদে বাড়ি ফেরা মানুষের নিরাপদ যাত্রা ও মহাসড়ককে যানজট মুক্ত রাখতে হাইওয়ে পুলিশের পক্ষ থেকে নেওয়া হয়েছে প্রস্তুতি। হাইওয়ে পুলিশের দশটি পেট্রল টিম, দু’টি কন্ট্রোল রুম এবং দুর্ঘটনা কবলিত গাড়ি দ্রুত মহাসড়ক থেকে সরিয়ে নিতে রাখা হয়েছে পাঁচটি রেকার। এছাড়া সড়ক দুর্ঘটনায় কেউ আহত হলে তাদের চিকিৎসার জন্য দুটি অ্যাম্বুলেন্সও প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

এ বিষয়ে হাইওয়ে পুলিশের কুমিল্লা অঞ্চলের পুলিশ সুপার মুহাম্মদ রহমত উল্লাহ বাসসকে বলেন, আমরা মহাসড়ককে যানজট মুক্ত রাখতে বিভিন্ন প্রস্তুুতি গ্রহণ করেছি। বিশেষ করে দাউদকান্দির গৌরপুর, চান্দিনা, ইলিয়টগঞ্জ, নিমসার বাজার, সদর দক্ষিণের সুয়াগাজী ও চৌদ্দগ্রাম উপজেলা সদরে যাতে যানবাহনের জট না লাগে সে জন্য বিশেষ ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। ঈদ উপলক্ষে সাধারণ মানুষকে নিরাপদে বাড়ি পৌঁছাতে হাইওয়ে পুলিশ দিনরাত নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। আমরা চেষ্টা করছি মহাসড়কের যানজট তো দূরের কথা, কোথায়ও যেন জটলাও না বাধে।

কুমিল্লা থেকে ঢাকাগামী বাসযাত্রী কামরুল ইসলাম বাসসকে বলেন, সকালে এশিয়া লাইন পরিবহনে কুমিল্লা থেকে ঢাকায় এসেছি। মহাসড়কের কোথাও যানজট নেই। ঢাকা-কুমিল্লা রুটে চলাচলকারী রয়েল পরিবহনের বাসচালক তোফাজ্জল হোসেন বাসসকে বলেন, আজ সকালে মাত্র দেড় ঘণ্টায় ঢাকা থেকে কুমিল্লায় এসেছি। তবে মহাসড়কের কোথাও যানজট পাইনি। যাত্রীরা স্বস্তিতে নিজ নিজ গন্তবে ফিরছেন বলে জানিয়েছেন। সূত্র: বাসস


জুমবাংলানিউজ/একেএ