তারকা দম্পতির অনুষ্ঠানেও পরীমণির অপ্রীতিকর আচরণ

পরীমণিগুলশান অল কমিউনিটি ক্লাবের পর এবার বনানী ক্লাবে ভাঙচুরের অভিযোগ উঠল চিত্রনায়িকা পরীমণির বিরুদ্ধে। বিষয়টি পুলিশকে না জানানো হলেও ক্লাবের রেজিস্ট্রারে ‘অপ্রীতিকর’ ঘটনা হিসেবে নথিবদ্ধ করে রেখেছে কর্তৃপক্ষ। মাস ছয়েক আগে বনানী ক্লাবে এক তারকা দম্পতি আয়োজিত একটি অনুষ্ঠানে পরীমণি যোগ দেন। তখন তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ক্লাবে ভাঙচুর চালান তিনি। বনানী ক্লাবের সভাপতি রুবেল আজিজ গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, পরী মনি বনানী ক্লাবের সদস্য নন। তবে মাস ছয়েক আগে ক্লাবের ভেতরে একটি অনুষ্ঠানে সামান্য ঘটনার জের ধরে ভাঙচুর চালিয়েছেন। ক্লাবের স্টাফরা বিষয়টি আগে থেকেই জানতেন। বিষয়টি ক্লাবের রেজিস্ট্রার খাতায়ও লিখে রাখা হয়েছে। পরীমণির ঘটনা এবার সামনে আসার পর এখন ক্লাবের স্টাফরা বিষয়টি আমাদের জানায়।

এদিকে বিষয়টি নিয়ে পুলিশের গুলশান বিভাগের ডিসি সুদীপ কুমার চক্রবর্তী জানান, ‘বনানী ও গুলশান অল কমিউনিটি ক্লাবের বিষয়টি আমরা জানতে পেরেছি। তবে ক্লাব কর্তৃপক্ষ কোনো অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে দেখা হবে।’

এর আগে গত ৮ জুন গুলশানে অল কমিউনিটি ক্লাবে পরী মনি ভাঙচুর করেন বলে অভিযোগ উঠে। ৯৯৯-এ ফোন পেয়ে পুলিশ ওই রাতে ঘটনাস্থলে গেলেও তা প্রকাশ হয় ৯ দিন পর।

প্রসঙ্গত গত ৯ জুন মধ্যরাতে সাভারে অবস্থিত ঢাকা বোট ক্লাবে চিত্রনায়িকা পরীমণিকে ধর্ষণচেষ্টা ও হত্যাচেষ্টা করা হয় বলে তিনি অভিযোগ করেন। ঘটনার চার দিন পর রোববার (১৩ জুন) রাত ৮টার দিকে ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দিয়ে এবং রাত ১১টার দিকে সংবাদ সম্মেলন করে এ ঘটনা প্রকাশ করেন নায়িকা পরীমণি। সোমবার (১৪ জুন) সকালে ব্যবসায়ী নাসির উদ্দিন মাহমুদ ও অমিসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে সাভার থানায় মামলা করেন তিনি। ওই দিনই প্রধান আসামি নাসির উদ্দিন মাহমুদ ও অমিসহ পাঁচজনকে গ্রেফতার করে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ। তাদের কাছ থেকে মাদক ও ইয়াবা জব্দ করা হয়।


জুমবাংলানিউজ/ জিজি