Views: 38

বিনোদন

দক্ষিণের আবেদনময়ী ৫ অভিনেত্রীর গোপন তথ্য ফাঁস

সম্প্রতি দর্শকের রায়ে দক্ষিণের অভিনেত্রীদের মধ্যে সেরা আবেদনময়ীর খেতাব পেলেন অ্যামি জ্যাকসন। এক সিনেমা ম্যাগাজিনের আয়োজনে দর্শকের ভোটে এ খেতাব জিতেছেন অ্যামি। অ্যামির পরেই সেরা পাঁচের তালিকায় রয়েছেন শ্রুতি হাসান, হ্যানসিকাও।

রেখা থেকে শুরু করে বিদ্যা বালান দক্ষিণের অভিনেত্রীদের বলিউড বিজয় নতুন কিছু নয়। অভিনয় তো বটেই, শরীরি আবেদনেও অন্য প্রদেশের নায়িকাদের টেক্কা দিয়ে সেরার শিরোপা তাদের দখলেই রয়েছে। অতীতের সেই ট্র্যাডিশন এখনও চলছে।

অ্যামি জ্যাকসন বৃটিশ মডেল-অভিনেত্রী হলেও তার ক্যারিয়ার ছড়িয়ে আছে দক্ষিণী সিনেমাতে। ২০০৯ সালে ‘মিস টিন ওয়ার্ল্ড’ প্রতিযোগিতায়ও জিতেছিলেন এ অভিনেত্রী। এক পত্রিকার জরিপে ২০১২ সালে মোস্ট ডিজায়ারাবেল উইম্যানও হয়েছিলেন তিনি। এবারের এই ম্যাগাজিনের বিচারেও সেরা আবেদনময়ী হলেন অ্যামি।


এছাড়া এ তালিকায় আছেন- কমল-সারিকা কন্যা শ্রুতি হাসানও। বলিউডের রামাইয়া ভাস্তাভাইয়া, ডি ডে-র মতো ছবিতেও কাজ করেছেন তিনি। দক্ষিণের আর এক নায়িকা সামান্থা রুথ প্রভুও আছেন এ তালিকায়। হিন্দি ছবিতে বেশি কাজ করেননি তিনি তবে বলিউডের এক দিওয়ানা থা সিনোময় দেখা গেছে তাকে।

তামান্না ভাটিয়াও বাজিমাত করেছেন। জায়গা করে নিয়েছেন সেরা আবেদনময়ীর এ তালিকায়। অসংখ্য দক্ষিণী সিনেমা ছাড়াও বলিউডে অক্ষয়কুমারের মতো নায়কের সঙ্গে কাজ করেছেন তিনি।

তালিকায় পাঁচ নম্বরে আছেন হ্যানসিকা মোতওয়ানি। ছোটবেলা থেকেই কাজ করছেন বলিউডে। কোই মিল গ্যায়া, অ্যাবরা কা ডাবরা ছবিতে শিশু অভিনয়শিল্পী হিসেবে অভিনয় করে বলিউডে তিনি তাক লাগিয়ে দিয়েছিলেন। এখন তিনি আর সেই শিশুটি নেই। তিনি এখন ২৩ বছর বয়সি যুবতী। তার আবেদনময়ী শরীর আর অভিনয়ে মাত করেছেন দক্ষিণী দর্শকদেরও।


যাদের বাচ্চা আছে, এই এক গেইমে আপনার বাচ্চার লেখাপড়া শুরু এবং শেষ হবে খারাপ গেইমের প্রতি আসক্তিও।ডাউনলোডকরুন : https://play.google.com/store/apps/details?id=com.zoombox.kidschool


আরও পড়ুন

বলিউডে কুপ্রস্তাবের শিকার তারা

Shamim Reza

ছেলের জন্মদিনে শাকিব খানের আবেগঘন স্ট্যাটাস

Saiful Islam

দীপিকার ফোন জব্দ করলো এনসিবি

Saiful Islam

রোশান বললেন, এটা আমার জন্য সৌভাগ্যের

Shamim Reza

ইউপি চেয়ারম্যান নির্বাচনে মাঠে নামলেন বিশ্বখ্যাত মডেল আসিফ আজিম

rony

মাদক নেওয়ার ব্যাপারে দীপিকার সরল স্বীকারোক্তি

Shamim Reza