দশম শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষন ও ভিডিও ধারনের অভিযোগ

ছাত্রীকে ধর্ষনপাবনার চাটমোহরে প্রেমের ফাঁদে ফেলে এক স্কুলছাত্রী (১৫) কে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষন ও ধর্ষনের দৃশ্য ভিডিও ধারণ করার অভিযোগে পুলিশ কথিত প্রেমিক ও তার সহযোগি এক নারীসহ ৩ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এর আগে ওই স্কুলছাত্রীর মা থানায় মামলা দায়ের করেছেন। আটককৃতরা হলো- চাটমোহর উপজেলার হরিপুর ইউনিয়নের গোপালপুর গ্রামের শাহজাহান আলীর ছেলে ও স্কুলছাত্রীর কথিত প্রেমিক সাজেদুল ইসলাম (৩৬) ও তার সহযোগি ফরিদপুর উপজেলার রামনগর উত্তরপাড়া গ্রামের আমির হোসেনের স্ত্রী ও চাটমোহর পৌরসভার নারিকেলপাড়া মহল্লার নিজাম উদ্দিনের ভাড়াটিয়া সাহেদা খাতুন (৪২)।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, প্রায় ৩ বছর আগে নাটোর জেলার বড়াইগ্রাম উপজেলার শ্রীরামপুর গ্রামের জৈনক ব্যক্তির মেয়ে ও শ্রীরামপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণীর ছাত্রীর সাথে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে প্রেমের সম্পর্ক হয় সাজেদুল ইসলামের। গত ১৬ জুন সকালে সাজেদুল ওই স্কুলছাত্রীকে চাটমোহরে আসতে বলে। স্কুলছাত্রী চাটমোহরে আসলে সাজেদুল তাকে পৌর শহরের নারিকেলপাড়া মহল্লায় নিজাম উদ্দিনের ভাড়াটিয়া ও তার আত্মীয় সাহেদা খাতুনের বাসায় নিয়ে আসে। সেখানে বিয়ের প্রলোভনে একাধিকবার ধর্ষন করে এবং মোবাইলে ভিডিও ধারণ করে। ওই স্কুলছাত্রী বিয়ের কথা বললে তাকে বাসা থেকে বের করে দিয়ে ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দেয়।

স্কুলছাত্রীর সাথে কথা কাটাকাটির বিষয়টি জানতে বাড়ির মালিক নিজাম উদ্দিনসহ অন্যরা এগিয়ে আসে। খবর দেওয়া হয় ওই স্কুলছাত্রীর পিতা-মাতাকে। এক পর্যায়ে বিষয়টি পুলিশে জানানো হলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার করাসহ আটক করে ২জনকে। স্কুলছাত্রীর মা চাটমোহর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

চাটমোহর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) হাসান বাশীর জানান, মামলা হওয়ার পর ২জনকে গ্রেফতার দেখিয়ে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। ধর্ষিতার ডাক্তারী পরীক্ষা করা হয়েছে।

আজকের জনপ্রিয়:
>> আয়ু কমে যাওয়ার ৭ কারণ
>> সন্তানদের যে আমলের অভ্যাস করানো জরুরি
>> ছেলেদের যে বিষয়গুলো মেয়েরা সবার আগে খেয়াল করে


Share:





জুমবাংলানিউজ/ জিজি