Views: 23

খেলাধুলা

দাঁড়াতেই পারলো না আফগানিস্তান, ফাইনালে বাংলাদেশ

স্পোর্টস ডেস্ক : ইমার্জিং এশিয়া কাপের প্রথমবারের মত টুর্নামেন্টের ফাইনালে উঠল বাংলাদেশ। আসরের দ্বিতীয় সেমি ফাইনালে আফগানিস্তানকে ৭ উইকেটে উড়িয়ে দিয়েছে টাইগাররা। এর আগে অনুষ্ঠিত তিন আসরেই নক আউট পর্বে উঠেছিল লাল সবুজের ইমার্জিং দল। কিন্তু কোনটিতেই ফাইনালের স্বাদ পাওয়া হয়ে ওঠেনি। অবশেষে চতুর্থ আসরে এসে বহুকাঙ্খিত সেই প্রথমের দেখা পেল।

জয়ের জন্য নির্ধারিত ৫০ ওভারে শান্ত-সৌম্যদের প্রয়োজন ছিল মাত্র ২২৯ রান। যা ছুঁয়ে ফেলল মাত্র ৩ উইকেটের খরচায়। বল বাকি ছিল আরো ৬১ টি।

রান তাড়ায় নেমে দলীয় ২৬ রানেই ওপেনার নাইম শেখকে হারায় বাংলাদেশ। আযমত উল্লাহ উমরযাইর আউট সুইংয়ে তারিক স্তানিকযাইর তালুবন্দি হয়ে ফেরেন ১৭ রানে ফেরেন নাইম। কিছুটা চাপে পড়ে আয়োজক দল। দ্বিতীয় উইকেটে সৌম্যর সঙ্গে ইনিংস মেরামত করে সেই চাপ দূর করেন অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত।

এরপর দুজনই ব্যাট ছোটান সহজ লক্ষ্যের পথে। কিন্তু আচমকাই পা হরকালেন সৌম্য। ৫৯ বলে ৬১ রানের ইনিংস খেলে আবদুল ওয়াসির বলে কাটা পড়েন। দলীয় রান তখন ১৩৩। ফেরার আগে দলকে দিয়ে গেলন ১০৭ রানের জুটি।


সৌম্য ফেরার পর অবশ্য শান্তুও খুব বেশিক্ষণ ক্রিজ আঁকড়ে থাকতে পারেননি। দলীয় ১৫৪ রানে সেই ওয়াসি তাকে ওয়াহেদুল্লার হাতে তুলে দিয়ে ড্রেসিংরুমের পথ দেখান। যাওয়ার আগে শান্ত নামের পাশে যোগ করেন ৫৯ রান।

এরপর অবশ্য আর কোন বিপদ নয়। আফিফ হোসেন ধ্রুব ও ইয়াসির আলী চৌধুরী রাব্বির সতর্ক ব্যাটে ২২৯ রান এলে জয়ের বন্দরে নোঙর ফেলে বাংলাদেশ। আফিফ অপরাজিত ছিলেন ৪৫ রানে। ৩৯ বলে তিনটি চার ও দুটি ছয়ের মারে তিনি এই রান সংগ্রহ করেন। আর ইয়াসির আলী রাব্বি ৫৬ বল খেলে অপরাজিত থাকেন ৩৮ রানে।

এরআগে বৃহস্পতিবার (২১ নভেম্বর) মিরপুর শের ই বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বাংলাদেশের কাছে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে দলীয় ৩৬ রানেই টপ অর্ডারের চার ব্যাটসম্যানকে হারিয়ে চলে যায় ব্যাকফুটে চলে যায় আফগানিস্তান। দলের ঘোরতর দূর্যোগে হাল ধরেন মিডল অর্ডার দারভিস রাসুলি। ১২৮ বলে তার ১১৪ রানের ঝলমলে ইনিংসে দলটি ২২৮ রান তুলতে সমর্থ্য হয়।

দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩৪ রান এসেছে লোয়ার মিডল অর্ডার ওয়াহেদউল্লাহ শফিকের ব্যাট থেকে। আর টেলএন্ডার তারিক স্ত্যানিকজাই ২৭ বলে করেছেন ৩৩ রান। বল হাতে বাংলাদেশের হয়ে দাপট দেখিয়েছেন হাসান মাহমুদ ও সৌম্য সরকার। দুজনই ৩ টি করে উইকেট শিকার করেছেন। তানভির আহমেদের শিকার ২টি।


আরও পড়ুন

২০২১ সালের আইপিএলও আরব আমিরাতে!

Mohammad Al Amin

৪ বলে ৪ জনকে বোল্ড করলেন আফ্রিদি (ভিডিওসহ)

Shamim Reza

সিরি’আতে দর্শক ফেরার রাতে সহজ পেয়েছে জুভেন্টাস

Mohammad Al Amin

লকডাউনে ফিটনেসের উন্নতি হয়েছে মাহমুদউল্লাহর

Shamim Reza

বিয়ের দেড় বছরের মাথায় বাবা হচ্ছেন মিরাজ

rony

আইপিএলে নিজেদের প্রথম ম্যাচে মাঠে নামছেন না বাটলার

Mohammad Al Amin