Views: 82

জাতীয়

দুই মেয়েকে ফেলে স্বামী-স্ত্রী দুজনেরই মৃত্যু

জুমবাংলা ডেস্ক : দুই মেয়ে আর স্বামীকে নিয়ে সুখেই কাটছিল ইয়াসমিন বেগমের সাজানো সংসার। প্রতিদিনের মতো গতকাল সকালেও সংসারের যাবতীয় কাজ শেষে স্বামী হুমায়ূন কবির ভূঁইয়ার সঙ্গে মোটরসাইকেলে করে কর্মস্থলে যাচ্ছিলেন তিনি। কিন্তু কর্মস্থলে আর যাওয়া হয়নি ইয়াসমিনের। পথেই নিভে গেল জীবনপ্রদীপ। দুই মেয়েকে ফেলে স্বামী-স্ত্রী দুজনই পাড়ি জমালেন পরপারে।

বৃহস্পতিবার সকালে মানিকগঞ্জ সদরের মুলজান এলাকায় ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে গোল্ডেন লাইন পরিবহনের একটি বাস মোটরসাইকেলটিকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই নিহত হন হুমায়ূন কবির। গুরুতর আহত অবস্থায় মানিকগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগে মৃত্যু হয় ইয়াসমিনের।


নিহত হুমায়ূন কবির ভূঁইয়া মানিকগঞ্জ সদর উপ‌জেলার গড়পাড়া ইউপির চরগড়পাড়ার বাসিন্দা। তিনি ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে চাকরি করতেন। ইয়াসমিন বেগম সাভারের নবীনগরের পলাশবাড়ী এলাকার বাসিন্দা। তিনি মুলজান পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের বিলিং সেক্টরে কর্মরত ছিলেন।

এ দম্পতির বড় মেয়ে শোভা নবম শ্রেণির ছাত্রী। আর ছোট মেয়ে ইভা পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী। গড়পাড়া মাঠে মা-বাবার জানাজার আগে তাদের শেষবার দেখতে গিয়েছিল তারা। শোভা শুধু ‘ও বাবা, ও মা’ বলে আর্তনাদ করছিল। চোখে-মুখে শূন্য দৃষ্টি নিয়ে তাকিয়ে ছিল ইভা। তাদের কান্না আর আর্তনাদে স্তম্ভিত হয়ে পড়েছিল চারপাশ।

বৃহস্পতিবার বিকালে জানাযা শেষে স্থানীয় কবরস্থানে দাফন করা হয় হুমায়ূন-ইয়াসমিন দম্পতিকে। দাফন শেষে সবাই চলে গেলেও মা-বাবার কবরের দিকে শূন্য দৃষ্টিতে তাকিয়ে ছিল শোভা-ইভা।


আরও পড়ুন

পঞ্চগড়ে নিখোঁজের ৯ দিন পর কিশোরের মরদেহ উদ্ধার

azad

সরকারি প্রকল্পের কেনাকাটায় ‘অস্বাভাবিক দাম’ নিয়ে ৬ নির্দেশনা

Shamim Reza

নারায়ণগঞ্জে মসজিদে বিস্ফোরণ: মৃত্যু বেড়ে ৩৪

Shamim Reza

ভিপি নুরকে আইনি সহায়তা দেয়ার আশ্বাস ড. কামালের

rony

১৩ অক্টোবর ভিপি নূরসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে মামলার প্রতিবেদন

rony

খুলতে পারে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান: ২৫ শতাংশ প্রাথমিক বিদ্যালয় খুলে দেয়ার প্রস্তাব

rony