in

দৌলতদিয়া ফেরিঘাটে ৭ কিলোমিটার যানজট

জুমবাংলা ডেস্ক : দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া ফোরিঘাটের দৌলতদিয়া প্রান্তে ৭ কিলোমিটার যানজট সৃষ্টি হয়েছে। পদ্মা নদীতে নাব্যতা সংকট, ফেরির জন্য পর্যাপ্ত ঘাট না থাকা এবং নদীতে প্রচণ্ড স্রোত থাকায় যানজট সৃষ্টির কারন বলে জানিয়েছে বিআইডাব্লিউটিসি ।

রোববার (১৭ অক্টোবর) রাত ৮ টার দিকে সরোজমিনে গিয়ে দেখা যায় ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের দৌলতদিয়া ঘাট এলাকায় প্রায় ৫ কিলোমিটার অংশ জুড়ে পণ্যবাহী ট্রাক, যাত্রীবাহী বাস এবং কাভার্ড ভ্যানের জট রয়েছে।

এছাড়া দৌলতদিয়া থেকে সাড়ে ১৩ কিলোমিটার দূরে গোয়ালন্দ মোড়ে ঢাকা-কুষ্টিয়া আঞ্চলিক মহাসড়কের দুই কিলোমিটার অংশ জুড়ে অপচনশীল পণ্যবাহী ট্রাক এবং কাভার্ড ভ্যান দাঁড় করিয়ে রাখা হয়েছে। ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে জানযটের চাপ কমাতেই ট্রাকগুলো ঘাট থেকে দূরে রাখা হয়েছে বলে জানা গেছে।

ঝিনাইদহ থেকে আসা কাভার্ড ভ্যান চালক মানিক বলেন, ‘সকাল ৮টার দিকে দৌলতদিয়া ঘাট এলাকায় এসেছি । ১২ থেকে ১৩ ঘণ্টা হয়ে গেলো এখনো ফেরিতে উঠতে পারিনি।’

চুয়াডাঙ্গা থেকে আসা আরেক চালক শরীফ জানান, ‘ঘাট এলাকায় হোটেল,বাথরুম না থাকায় আমাদের কষ্ট হচ্ছে।’

সাতক্ষীরা থেকে আসা বাসযাত্রী জুই বলেন, ‘ফেরি পার হওয়ার জন্য তিন থেকে চার ঘণ্টা ধরে গাড়ির দীর্ঘ সারিতে অপেক্ষা করছি। এতো যানজটে সময় যেমন অপচয় হচ্ছে,অন্যদিকে গন্তব্য সঠিক সময়ে পৌঁছানো নিয়েও শঙ্কায় আছি।’

ফরিদপুর থেকে আগত সিনান আহমেদ বলেন, ‘আমাকে ঢাকা যেতে হচ্ছে একটি জরুরি কাজে। তবে, যে সময়ে পৌঁছাবো ভেবেছিলাম সেই সময়ের মধ্যে পৌঁছাতে পারব না।’

বিআইডাব্লিউটিসির দৌলতদিয়া ঘাট শাখার ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) মো: শিহাব উদ্দিন বলেন, ‘ফেরির ঘাট স্বল্পতার জন্য অনেক ফেরি গাড়ি নিয়ে ঘাটে ভিড়ার অপেক্ষায় থাকছে। এছাড়া শিমুলিয়া-বাংলা বাজার রুটের কিছুটা চাপও এদিকে পড়েছে। তবে, এখন ছোট বড় মিলিয়ে ১৯ টি ফেরি চলাচল করছে। এই যানজট অল্প সময়ে কেটে যাবে বলে আশা করছি।’