in ,

ধর্ষণে ব্যস্ত ছোট ভাই, মোবাইলে ভিডিও করে বড় ভাই

জুমবাংলা ডেস্ক : সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় স্কুলছাত্রীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ মামলার প্রধান দুই আসামিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিশেষ অভিযান চালিয়ে পাবনার চাটমোহর উপজেলার দাঁদ কয়ড়া গ্রাম থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- মাসুদ রানা ও তার আপন বড় ভাই আব্দুল মাজেদ। তারা সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া উপজেলার কাশিনাথপুরের বদিউজ্জামানের ছেলে।

উল্লাপাড়া মডেল থানার ওসি হুমায়ুন কবির জানান, বুধবার সকালে আসামিদের সিরাজগঞ্জ আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, ওই ছাত্রীর অশ্লীল ছবি ও ভিডিও ধারণ করে ফেসবুকে ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে দফায় দফায় চাঁদা নেয় চার প্রতারক। প্রথমে ৪০ হাজার টাকা, পরে মায়ের গয়না বিক্রি করে আরো ৩০ হাজার টাকা দেয় স্কুলছাত্রী।

শেষে প্রতারক চক্রটি শিক্ষার্থীর কাছে আরো ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করলে মেয়েটি দিতে অস্বীকার করে। পরে মামলার আসামি সিরাজগঞ্জ সদর থানার একঢালা গ্রামের ইমন শেখ ওই শিক্ষার্থীকে গোপনে ডেকে নিয়ে অনৈতিক প্রস্তাব দেন। ২৭ আগস্ট রাতে তাকে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করে একই গ্রামের হরমুজ প্রামাণিকের ছেলে রাকিব ও বদিউজ্জামানের ছেলে মাসুদ রানা। ওই সময় ধর্ষণের দৃশ্য মোবাইলে ধারণ করে মাসুদের বড় ভাই আব্দুল মাজেদ।

গত ৭ সেপ্টেম্বর ধর্ষণের শিকার শিক্ষার্থীর বাবা বাদী হয়ে চার প্রতারকের বিরুদ্ধে মামলা করেন।