জাতীয়

নিঃশর্ত ক্ষমা চেয়ে অব্যাহতি পেলেন দুই নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট

জুমবাংলা ডেস্ক : দীর্ঘদিন অতিবাহিত হওয়ার পরও ভ্রাম্যমাণ আদালতের আদেশের কপি না দেওয়ায় হাইকোর্টের আদেশে হাজির হন দুই নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। সেখানে জানান এরপর যাতে আর এই ধরনের ভুল না হয় সে ব্যাপারে সতর্ক থাকবেন। পাশাপাশি নিঃশর্ত ক্ষমা চাইলে হাইকোর্ট তাদের ক্ষমা করে ব্যক্তিগত হাজিরা থেকে অব্যাহতি দেন।

দুই ম্যাজিস্ট্রেট হলেন- রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (রাজউক) নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জেসমিন আক্তার ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টের নকল শাখার ভারপ্রাপ্ত ইনচার্জ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাসুকাতে রাব্বি।

বুধবার (২৯ জানুয়ারি) বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

এর আগে গত ২৩ জানুয়ারি তাদেরকে তলব করে আদেশ দিয়েছিলেন আদালত।

আদালতে রিটকারীর পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট মো. আছরারুল হক, তাকে সহযোগিতা করেন অ্যাডভোকেট মো. আমিনুর রহমান চৌধুরী। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অমিত তালুকদার, সঙ্গে ছিলেন সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল এম এম জি সরোয়ার পায়েল। আজ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাসুকাতে রাব্বির পক্ষে ছিলেন মো. মোজাম্মেল হক।

গত বছরের ১৭ ডিসেম্বর জেসমিন আক্তারকে তলব করেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে একটি প্রতিষ্ঠানটিকে করা ১ লাখ টাকার জরিমানার আদেশের ওপর স্থিতিবস্থা বজায় রাখার আদেশ দেন আদালত।

গত বছরের ১৪ নভেম্বর রাজউকের ভ্রাম্যমাণ আদালত প্রকল্প উপদেষ্টা লিমিটেড নামের একটি কনসাল্টিং, আর্কিটেক্ট ও ইঞ্জিনিয়ারিং প্রতিষ্ঠানকে এক লাখ টাকা জরিমানা করে। ওইদিনই জরিমানার টাকা আদায় করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। এরপর এই আদেশের কপি চেয়ে গত বছরের ৪ ও ৫ ডিসেম্বর আবেদন করে প্রতিষ্ঠানটির সংশ্লিষ্টরা। কিন্তু আজ পর্যন্ত আদেশের কপি সরবরাহ করা হয়নি। একারণে ওই আদেশের বিরুদ্ধে আপিলও করতে পারছেন না তারা। এ অবস্থায় আদেশের কপি চেয়ে ফের হাইকোর্টে আবেদন করা হলে আদালত তলব করে আদেশ দেন।

যাদের বাচ্চা আছে, এই এক গেইমে আপনার বাচ্চার লেখাপড়া শুরু এবং শেষ হবে খারাপ গেইমের প্রতি আসক্তিও। ডাউনলোডকরুন : http://bit.ly/2FQWuTP




জুমবাংলানিউজ/এসওআর


আপনি আরও যা পড়তে পারেন


rocket

সর্বশেষ সংবাদ