নুসরাতের মা হওয়া নিয়ে মুখ খুললেন মধুমিতা

বিনোদন ডেস্ক: টালিউডে নুসরাত জাহানের প্রেগন্যান্সির খবরে শোরগোল থামছেই না। নুসরাত ও যশ দাশগুপ্তের সম্পর্ক ব্যাপক চর্চিত বিষয়।

অথচ যশের রিয়েল লাইফে না হোক, রিল লাইফে সবচেয়ে চর্চিত সঙ্গী মধুমিতা সরকার তা বলার অপেক্ষা রাখে না। এই অভিনেতার বোঝে না সে বোঝে না সিরিয়ালের নায়িকা মধুমিতা সরকার এবার নুসরাতের প্রেগন্যান্সি নিয়ে মুখ খুললেন।

ভারতীয় গণমাধ্যমকে তিনি জানালেন, নুসরাত সাহসী মেয়ে, এবং মা হওয়ার সিদ্ধান্তটা তার একটি সাহসী পদক্ষেপ। অবশ্যই বলবো নুসরাতের প্রেগন্যান্সি গ্লো সত্যি ওকে আরও সুন্দরী করে তুলেছে। বেবি বাম্পটাই যা দেখা যাচ্ছে, এর বাইরে শরীরের অন্য কোথাও একফোঁটা বেবি ফ্যাট চোখে পড়ছে না। শুনছি শুটিং সেটেও একই রকম এনার্জি নিয়ে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে… হ্যাটস অফ!

মধুমিতা আরও বলেন, আমি কোনোদিন ওর মতো এমন একটা সাহসী পদক্ষেপ নিতে পারবো না, কারণ আমাদের সমাজে এই বিষয়টা নিয়ে অনেক ছুঁৎমার্গ রয়েছে।

বিয়ে না করেই সন্তানের মা হওয়ার ব্যাপারে, এবং সিঙ্গেল মা হওয়ার বিষয়ে কী ভাবেন মধুমিতা?

এ ব্যাপারে লাভ আজ কাল পরশু ছবির নায়িকা বলেন, ‘বিষয়টি নিয়ে নুসরাত কোনোরকম আনুষ্ঠানিক বিবৃতি দেয়নি, যে এটা ওর বিবাহ বর্হিভূত সম্পর্কের সন্তান কিনা, অথবা সিঙ্গেল মাদার হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েও নুসরাত কিছু বলেনি। তাই আমি এই নিয়ে কিছু বলবো না, এটা ওর জীবন, এবং আমি কেউ নই ওকে বিচার করবার। ব্যক্তিগতভাবে এটা বলতে পারি, আমি নিজে বিয়ের বাইরে সন্তানের জন্ম দেয়ার সিদ্ধান্তে বিশ্বাসী নই, কারণ আমার মনে হয় আমাদের দেশে, বিশেষত কলকাতায় মানুষের মানসিকতা এখনও এতটা স্বাধীন হয়েছে যে তারা এই সিদ্ধান্তটা সাদরে গ্রহণ করবে।

তিনি আরও বলেন, যদি আমি অন্তঃসত্ত্বা হই,তবে আমি চাইবো আমার ভাবী সন্তানের বাবার নামটাও সবাই জানুক কারণ সেটা আমাদের দুজনের সন্তান, দুজনের দায়িত্ব। আমার সাহসিকতার জন্য আমার সন্তান কষ্ট পাবে সেটা আমি কোনোদিন চাইবো না’।

সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস।


জুমবাংলানিউজ/এসওআর