in

নেই চালক, পেছনের সিটে আরোহী নিয়ে ছুটছে মোটরবাইক (ভিডিও)

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: বিশ্ব প্রতিনিয়ত পরিবর্তন হচ্ছে প্রযুক্তির উন্নতির জোয়ারে। গিয়ার ছাড়া গাড়ি, অটোমেটিক গিয়ারের গাড়ি আর তারপর এখন চিন্তা ভাবনা চলছে ড্রাইভার ছাড়া গাড়ি চালানোর। দিনে দিনে প্রযুক্তি যেভাবে এগিয়ে যাচ্ছে তাতে খুব তাড়াতাড়িই হয়তো সেটিও সম্ভব হবে। এমনকি টেসলার মালিক এলন মাস্ক তো রীতিমতো সেই প্রযুক্তির পরীক্ষাও শুরু করে দিয়েছেন।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন…

তবে সম্প্রতি ভারতের একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, রাস্তায় দ্রুতগতিতে একটি বাইক চলছে। সেই বাইকে আরোহী আছেন, বাইক তো অবশ্যই আছে কিন্তু বাইক চালক নেই। অথচ বাইকটা বেশ ভাল গতিতে এগোচ্ছে।

ভারতের মাহিন্দ্রা গ্রুপের চেয়ারম্যান আনন্দ মাহিন্দ্রা এই ভিডিওটি শেয়ার করেছেন। আনন্দ মাহিন্দ্রা অনেক সময়েই অনেক মজার, মনে প্রভাব ফেলার মতো ভিডিও শেয়ার করে থাকেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। তবে এই বার যে ভিডিও তিনি শেয়ার করেছেন, সেটা দেখলে চমকেই উঠতে হয়।

আনন্দ মাহিন্দ্রা সোশ্যাল মিডিয়ায় খুব সক্রিয় এবং টুইটারেও তার বিপুল সংখ্যক ফলোয়ার রয়েছেন। তিনি একজন টুইটার ইউজারের শেয়ার করা একটি ভিডিও রিটুইট করেছেন। যেখানে একজন মানুষকে চালকবিহীন বাইকে চড়তে দেখা যাচ্ছে এবং চালক ছাড়াই বাইকটিকে দারুণ গতিতে চলতেও দেখা যাচ্ছে।

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, এক ব্যক্তি মোটরবাইকের পেছনের সিটে বসে যাচ্ছেন। কিন্তু বাইকের চালকের আসনে কেউ নেই! বলা যেতে পারে নিজে নিজেই চলছে বাইকটি। হঠাৎ করে দেখলে মনে হবে, এটি কী করে সম্ভব। কিন্তু এই ধরনের স্টান্ট ভারতের রাস্তায় অনেকেই যে দেখিয়ে থাকেন, সে ব্যাপারে কোনো সন্দেহ নেই। কারণ এমন ভিডিও আগেও বেশ কয়েকবার দেখা গেছে।

যখন কেউ বাইকের পেছনের সিটে বসা লোকটিকে জিজ্ঞাসা করেন যে- কে গাড়ি চালাচ্ছে, ওই ব্যক্তি কেবল হাসেন এবং ওপরের দিকে তাকিয়ে ইঙ্গিত করেন, সবই সৃষ্টিকর্তার হাত। আনন্দ মাহিন্দ্রা মজার এই ক্যাপশনের সঙ্গেই ভিডিওটি শেয়ার করেছেন।

অনেকের মতে, ভারতের রাস্তায় এলন মাস্ক ড্রাইভারলেস গাড়ি আনার কথা বলছেন। তবে গাড়িগুলো রাস্তায় নামার পর ‘মোশনলেস’ হয়ে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে। কারণ ভারতের অধিকাংশ শহরের ব্যস্ত রাস্তায় চালকবিহীন গাড়িতে চড়া মানে নিজের বিপদ নিজেই ডেকে আনা।

ভাইরাল ভিডিওটি ইতোমধ্যে ২১ হাজার ৪০০-র বেশি লাইক পেয়েছে। এছাড়া ৬০০ বার রিটুইট হওয়া এই ভিডিওটি এখন পর্যন্ত ৫ লাখ ৬১ হাজারেরও বেশি বার দেখা হয়েছে।