পরীমণির করোনা টেস্ট জরুরি, সম্ভাব্য ঝুঁকিতে পুলিশ-সাংবাদিক

বিনোদন ডেস্ক : সম্প্রতি ঢাকা বোট ক্লাবকাণ্ডে আলোচনা ও সমালোচনায় আসা চিত্রনায়িকা পরীমণি জ্বর ও শ্বাসকষ্টে ভুগছেন। এমন পরিস্থিতিতে তার করোনা টেস্ট জরুরি হয়ে পড়েছে। টেস্ট পরবর্তী যদি তার ফলাফল ‘পজেটিভ’ আসে, তাহলে সম্ভাব্য ঝুঁকিতে পড়ে যাচ্ছেন সংশ্লিষ্ট পুলিশ সদস্য ও সাংবাদিকরা।

পরীমণির অসুস্থ হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে তার ঘনিষ্ঠ সূত্র। কেবল তা’ই নয়, ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের যুগ্ম কমিশনার (উত্তর) মোহাম্মদ হারুন অর রশীদও জ্বরে আক্রান্ত হয়েছেন বলে তিনি নিজেই আরটিভি নিউজকে নিশ্চিত করেছেন। বোট ক্লাবের ঘটনা যেহেতু ডিবি পুলিশ তদন্ত করছে, আর ঘটনার কেন্দ্রবিন্দু পরীমণিও যেহেতু জ্বর ও শ্বাসকষ্ট ভুগছেন, তাহলে ঘটনার তদন্ত কিভাবে অগ্রসর হবে- এমন প্রশ্নে পুলিশ কর্মকর্তা হারুন অর রশীদ বলেন- ‘পরীমণিরও জ্বর নাকি! আমারও জ্বর, আমি আগে সুস্থ হই, তারপর এ বিষয়ে কথা বলবো।’

তিনি বলেন, ‘কারও যদি জ্বর ও শ্বাসকষ্ট হয়ে থাকে, ঝুঁকির কথা মাথায় রেখে তার জন্য অবশ্যই করোনা টেস্ট জরুরী।’

এ সংক্রান্তে পরীমণির অসুস্থতার বিষয়টি ডা. লেলিন চৌধুরীর নজরে আনা হলে তিনি বলেন- “পরীমণির করোনা টেস্টের ফলাফল যদি ‘পজেটিভ’ আসে। তাহলে অবশ্যই তার খুব কাছাকাছি সম্প্রতি যারা উপস্থিত ছিলেন কিংবা সংস্পর্শে গিয়েছিলেন তারাও সম্ভাব্য ঝুঁকিতে রয়েছেন। এমন পরিস্থিতিতে তাদেরকে অবশ্যই কোয়ারেন্টিন থাকতে হবে।”

এদিকে গত ১৫ জুন ডিবি কার্যালয়ে পরীমণিকে ডাকা হলে সেই সংবাদ সংগ্রহে গিয়েছিলেন গণমাধ্যম কর্মীরা। এমন পরিস্থিতিতে গণমাধ্যমকর্মীদের সচেতন ও সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স এসোসিয়েশনের সভাপতি জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক মিজান মালিক। তিনি আরটিভি নিউজকে বলেন, ‘জ্বর কিংবা শ্বাসকষ্ট করোনার লক্ষণ নয়, সঙ্গে আরও কিছু থাকে। তাই টেস্ট ছাড়াই বলা যাচ্ছে না যে- পরীমণি করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।’

মিজান মালিক আরও বলেন, ‘করোনাকালীন সংবাদ সংগ্রহে গিয়ে অবশ্যই ঝুঁকির বিষয়টি গণমাধ্যমকর্মীদের মাথায় রাখতে হবে। মাস্ক পড়তে হবে, যথাযথভাবে শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে হবে। ভুলে গেলে হবে না যে- সামান্য অবহেলায় তিনি কেবল নিজেকে নয়, তার পরিবার, স্বজন এমনকি সহকর্মীদেরও ঝুঁকিতে ফেলে দিচ্ছেন।’

উল্লেখ্য, ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগে করা মামলায় তথ্য দিয়ে গত মঙ্গলবার (১৫ জুন) পরীমণি ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) কার্যালয়ে হাজির হয়ে ছিলেন। ওই দিন থেকেই জ্বর জ্বর ভাব ছিল তার । বৃহস্পতিবার (১৭ জুন) থেকে পুরোপুরি জ্বরে আক্রান্ত তিনি।

সম্প্রতি বোট ক্লাবে ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগ তোলার পর পরীমণিকে নিয়ে দেশজুড়ে ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি হয়। এর মধ্যেই গত বুধবার পরীমণির বিরুদ্ধে রাজধানীর গুলশানের অল কমিউনিটি ক্লাবে ভাঙচুরের অভিযোগ ওঠে।

সেদিন রাতে গণমাধ্যমকে পরীমণি জানান, তিনি অল কমিউনিটি ক্লাবে গিয়েছিলেন সত্যি, কিন্তু অপ্রীতিকর কোনো ঘটনা ঘটাননি।

এর আগে, গত রোববার (১৩ জুন) রাতে নিজের ফেসবুক পেজে নিজেকে ধর্ষণচেষ্টা, হত্যাচেষ্টা ও শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ করেন পরীমণি। বিচার চেয়ে আবেদন করেন প্রধানমন্ত্রী বরাবর।

পরেরদিন সোমবার সাভার থানায় নির্যাতন ও ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে ঢাকা বোট ক্লাবের এন্টারটেইনমেন্ট অ্যান্ড কালচারাল অ্যাফেয়ার্স সেক্রেটারি নাসির উদ্দিন মাহমুদ ও অমিসহ অজ্ঞাত ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন পরীমণি। এদিনই নাসির উদ্দিন মাহমুদ ও অমিসহ পাঁচজনকে উত্তরা থেকে আটক করে পুলিশের গোয়েন্দা শাখা (ডিবি)। মাদক মামলায় নাসির উদ্দিন মাহমুদ ও তুহিন সিদ্দিকী অমি, লিপি আক্তার , সুমি আক্তার ও নাজমা আমিন স্নিগ্ধা বর্তমানে রিমান্ডে আছেন।

আজকের জনপ্রিয়:
>> আয়ু কমে যাওয়ার ৭ কারণ
>> সন্তানদের যে আমলের অভ্যাস করানো জরুরি
>> ছেলেদের যে বিষয়গুলো মেয়েরা সবার আগে খেয়াল করে


Share:





জুমবাংলানিউজ/এসআর