in

পানের পিক পরিষ্কারেই খরচ ১২০০ কোটিরও বেশি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: রাস্তাঘাটে পান বা গুটখার পিক ফেলার সমস্যায় জর্জরিত পার্শ্ববর্তী দেশ ভারত। নরেন্দ্র মোদি সরকার নানা চেষ্টা করেও সচেতন করতে পারেননি দেশটির জনগণকে।

প্রায় ১২শ কোটি রুপি খরচ করেও রেলস্টেশনে পানের ও গুটখার পিক ফেলা নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থ হয়েছে দেশটি।

রেলস্টেশনগুলো পরিষ্কার রাখতে এরই মধ্যে জরিমানার বিধান চালু করেছে ভারত সরকার। স্টেশন চত্বরে পানের পিক ফেললেই ৫০০ রুপি জরিমানা করা হচ্ছে।

এবার পান বা গুটখার পিক ফেলা ঠেকাতে ‘ইজিস্পিট’ নামে ছোট ছোট প্যাকেট বা পিকদানি বিতরণ করার কথা ভাবছে ভারতীয় রেল কর্তৃপক্ষ।

পরিবেশবান্ধব এই পিকদানি সহজেই বহন করা যাবে, ব্যবহারও করা যাবে ১৫ থেকে ২০ বার। শুরুতে ৪২টি স্টেশনে এই পিকদানি পাওয়া যাবে। মাত্র ৫ টাকা থেকে ১০ টাকায় পাওয়া যাবে পিকদানিগুলো।

কয়েকটি স্টেশনে এরইমধ্যে এর ব্যবহার শুরুও হয়েছে। জানা যাচ্ছে, পিকদানিগুলো ব্যবহার করে মাটিতে ফেলে দিলে তা গাছ উৎপাদনে সহায়তা করবে। ফলে এগুলোকে যেকোনো জায়গায় ফেলে দিলে কোনো অসুবিধা নেই।

পান, গুটখার পিক বা থুতুর কারণে ভারতীয় রেলের প্রতি বছর লাখ লাখ টাকার সম্পত্তির ক্ষতি হয়। ট্রেনের বগি, মেঝে বা দেওয়ালে লেগে থাকা পিক বা থুতুর দাগ তুলতেও নষ্ট হয় প্রচুর পানি। এ জন্যই বহুদিন ধরে এ সমস্যা সমাধানের একটা উপায় খোঁজা হচ্ছে।
সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস।