in

পোশাক খুলে অডিশন দিতে বলেন শিল্পার স্বামী, মুখ খুলছেন মডেল

মডেল-অভিনেত্রী সাগরিকা সোনা সুমনকে ওয়েব সিরিজে অভিনয় করার সুযোগ দেবেন বলে প্রতিশ্রুতি দেন বলিউড অভিনেত্রী শিল্পা শেট্টির স্বামী রাজ কুন্দ্রা। কিন্তু অডিশন নেওয়ার সময়ে পোশাক খুলে ফেলার নির্দেশ দেওয়া হয় মডেলকে। ফেব্রুয়ারি মাসে এমনই অভিযোগ দায়ের করেছিলেন সাগরিকা। খবর-আনন্দবাজার।

অভিযোগ জানানোর সময়ে তিনি দাবি করেছিলেন, যৌনপেশায় যে বড় চক্রান্ত চলছে, তার পিছনে শিল্পা শেট্টি কুন্দ্রার স্বামীর বড় রকমের ভূমিকা রয়েছে। যে তিনজন তাঁর অডিশন নিয়েছিলেন, তাঁদের মধ্যেই এক জন ছিলেন রাজ। গত বছর অগস্ট মাসে সেই অডিশনটি নেওয়া হয়েছিল ভিডিও কল করে।

সাগরিকা বলেছিলেন, ‘৩/৪ বছর ধরে মডেলিং করছি আমি। কিন্তু খুব বেশি কাজ করিনি। এই লকডাউনের মধ্যেই একটি কাজ পেয়েছিলাম। সেই অভিজ্ঞতা জানাতে চাই সকলকে। অগস্ট মাসে আমি উমেশ কামাটজির (রাজের এক সহকারী) কাছ থেকে ফোন পাই। ওয়েব সিরিজের জন্য প্রস্তাব দেওয়া হয় আমায়।

বলা হয়, রাজ কুন্দ্রা এই সিরিজের প্রযোজনা করছেন।’ সাগরিকার কথায় জানা যায়, উমেশ কামাট তাঁকে এমনও বলেছিলেন, তিনি যদি এই সিরিজে কাজ করতে রাজি হন, আরও একাধিক ভাল ভাল ছবি ও সিরিজে অভিনয়ের সুযোগ পাবেন। এই কথায় রাজি হয়ে যান সাগরিকা।

ভিডিও কলে অডিশনের সময়ে আচমকাই তাঁকে পোশাক ছাড়তে বলা হয়। কিন্তু সাগরিকা প্রত্যাখান করেন। সাগরিকা জানান, ভিডিও কলের অপর প্রান্তে তিন জন ব্যক্তি ছিলেন। এক জন উমেশ, আর এক জন রাজ এবং তৃতীয় জনের মুখ ঢাকা ছিল। এছাড়া শার্লিন চোপড়াও জানিয়েছেন, প্রত্যেকটি ছবিতে কাজের জন্য রাজ তাঁকে ৩০ লক্ষ টাকা করে দিতেন। শিল্পার স্বামীর জন্যই নাকি ১৫ থেকে ২০টি এমন কাজ করেছেন তিনি। এই অভিযোগ সামনে আসার পরই চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।

উল্লেখ্য, পর্ন ছবি বানানোর অভিযোগে সোমবার মুম্বাই পুলিশের হাতে গ্রেফতার হন রাজ। তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ, পর্ন বানানোর পাশাপাশি তিনি তা বিশেষ অ্যাপের মাধ্যমে ছড়িয়ে দিতেন মুঠোফোনে। প্রশাসন আরও জানিয়েছে, ঘটনার মূল ষড়যন্ত্রকারীও রাজ। সে সম্পর্কে যথেষ্ট তথ্য-প্রমাণ হাতে রয়েছে মু্ম্বাই পুলিশের।