in

প্রণোদনার ঋণ কোথায় গেল, কারা পেল? জানতে চায় বাংলাদেশ ব্যাংক

জুমবাংলা ডেস্ক : করোনাভাইরাসের কারণে ব্যবসার ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে ছোট-বড় ব্যবসায়ীরা স্বল্প সুদে প্রায় ৪৫ হাজার কোটি টাকা প্রণোদনার ঋণ নিয়েছেন। এ ঋণের মোট সুদের অর্ধেক ভর্তুকি হিসেবে দিয়েছে সরকার। কারা এই ঋণ নিয়েছে ও ঋণের ব্যবহার কোথায় হয়েছে, তার তথ্য চেয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

এ বিষয়ে জানতে ব্যাংকগুলোকে চিঠি দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। সব ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীদের কাছে পাঠানো চিঠিতে কারা ঋণ নিয়েছে ও ঋণের ব্যবহার কোথায় হয়েছে, তার তথ্য চাওয়া হয়েছে। প্রণোদনার ঋণ ক্ষতিগ্রস্তরা না পেয়ে অন্য কেউ পেয়ে থাকলে সংশ্লিষ্ট ব্যাংক ও ঋণগ্রহিতার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার হুশিয়ারি দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত শিল্প ও সেবা খাতের ব্যবসায়ী ও শিল্প উদ্যোক্তাদের সহায়তা করতে গত বছর সাড়ে ৪ শতাংশ সুদে প্রায় ৩০ হাজার কোটি টাকা প্রণোদনার ঋণ বিতরণ করে ব্যাংকগুলো। আর ক্ষুদ্র ও মাঝারি খাতের ব্যবসায়ীদের দেওয়া হয় ৪ শতাংশ সুদে ১৫ হাজার কোটি টাকা। এসব ঋণের সুদহার ছিল ৯ শতাংশ। বাকি সুদ ভর্তুকি হিসেবে দিয়েছে সরকার।

বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তারা বলছেন, গ্রাহক ঋণ নিয়েছে এমন তথ্য দেখিয়ে ব্যাংকগুলো সুদ ভর্তুকির টাকা নিয়ে গেছে। তাই প্রথমত দেখা হবে আসলেই গ্রাহকের কাছে ঋণ গেছে কি না। এরপর দেখা হবে ওই গ্রাহক ঋণের টাকার ব্যবহার কোথায় করেছেন। কারণ, ঋণের ব্যবহার হওয়ার কথা শুধু চলতি মূলধন হিসেবে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র সিরাজুল ইসলাম গণমাধ্যমকে বলেন, প্রণোদনার ঋণের টাকা কারা পেয়েছে ও কী উদ্দেশ্যে এই টাকা ব্যবহার হয়েছে তা, খতিয়ে দেখবে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। এজন্য ব্যাংকগুলোর কাছে তথ্য চেয়ে চিঠি দেওয়া হয়েছে।

অনলাইনে খুব সহজে টাকা ইনকাম করার উপায়