শিক্ষা

প্রাণ ফিরেছে ক্যাম্পাসে, ক্লাসে ফিরেছে শিক্ষার্থীরা

জুমবাংলা ডেস্ক : গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ১৭ দিন বন্ধ থাকার পর শিক্ষার্থীদের পদচারণায় আবারও মুখরিত বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস।

গত ৬ ফেব্রুয়ারি রাত থেকে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি) কর্তৃক আগামী শিক্ষাবর্ষ থেকে ইতিহাস বিভাগে শিক্ষার্থী ভর্তি বন্ধের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে ও ইতিহাস বিভাগের স্থায়ী অনুমোদনের দাবিতে প্রশাসনিক ও একাডেমিক ভবনে তালা দিয়ে আন্দোলন শুরু করে বিভাগটির শিক্ষার্থীরা। এতে ১৭ দিন বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল কার্যক্রম বন্ধ থাকে।

কৃষি বিভাগের শিক্ষার্থীর সিমান্ত মালাকার বলেন, ‘দীর্ঘদিন পরে ক্যাম্পাসে প্রাণ ফিরে আসায় আমরা আনন্দিত।’

তিনি আরো বলেন, ‘ভবিষ্যৎ যেকোনো যৌক্তিক আন্দোলনে ক্যাম্পাস সম্পূর্ণ অচল করে ক্যাম্পাসে পরিবেশ নষ্ট না করার আহ্বান করেন।’

জানা গেছে, গত ২০ ফেব্রুয়ারি রাতে ইতিহাস বিভাগের শিক্ষার্থীরা তদন্ত কমিটির প্রতি আস্থা রেখে এবং আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে বিভাগ অনুমোদনের দাবীর আন্দোলন আগামী ৫ মার্চ পর্যন্ত শিথিল করে প্রশাসনিক ও একাডেমিক ভবনের প্রধান ফটকের তালা খুলে দেয়। এরপর ২১ ফেব্রুয়ারি এক সংবাদ সম্মেলন শিক্ষার্থীরা নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে তাদের দাবি মেনে নেওয়া না হলে ৬ মার্চ ইউজিসি ভবন ঘেরাও এবং আমরণ অনশনের ঘোষণা দিয়েছে।

এ ব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার ড.নুরুউদ্দিন আহমেদ জানান, আজ থেকে যথারীতি বিশ্ববিদ্যালয় সকল কার্যক্রম শুরু হইছে।

অন্যদিকে ইতিহাস বিভাগের পূর্বনিধারিত কর্মসূচি অনুযায়ী বেলা ১২টায় বিক্ষোভ মিছিল করে ওই বিভাগের শিক্ষার্থীরা। এর পাশাপাশি তারা ক্লাস বন্ধ রেখে প্রশাসনিক ভবনের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করে আন্দোলন অব্যাহত রেখেছে।


আরও পড়ুন

ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয়ের সেই ছাত্রী বহিষ্কার

Shamim Reza

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত জবি ছাত্রী

Shamim Reza

ঈদের ছুটি পর্যন্ত বন্ধ হতে পারে সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান

Shamim Reza

‘আমার করোনা হয়নি’ স্ট্যাটাস দেওয়া ঢাবির সেই ছাত্রের মৃত্যু

Shamim Reza

অস্ট্রেলিয়ায় বিপাকে পড়া রাবি’র প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের পাশে ‘রুয়া’

mdhmajor

করোনার মধ্যে প্রাথমিকের নতুন সময়সূচি প্রকাশ

globalgeek