ফরিদপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতদের দাফন সম্পন্ন

সড়ক

জুমবাংলা ডেস্ক: ঈদের আমেজ কাটাতে স্বপ্নের পদ্মা সেতু ভ্রমণ শেষে নড়াইলে বাড়ি ফেরার পথে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত তিনবন্ধুর দাফন সম্পন্ন হয়েছে। মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে নড়াইল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে এক সাথে জানাযার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়। জানাযার নামাজ শেষে নড়াইল পৌর কবস্থানে তাদের দাফন করা হয়। জানাজার নামাজে উপস্থিত ছিলেন নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য মাশরাফি বিন মর্তুজাসহ বিভিন্ন শ্রেণীপেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, সোমবার সন্ধ্যার দিকে নড়াইল-ভাটিয়াপাড়া-মাওয়া সড়কের ফরিদপুরের নগরকান্দার জয়বাংলা মোড় এলাকায় মাইক্রোবাসের চাপায় ঘটনাস্থলে দুবন্ধু এবং অপরজনকে হাসপাতালে নেওয়ার পথে মারা যায়। নিহতরা হলো নড়াইল শহরের বাসিন্দা লাহুড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান জিএম নজরুল জমাদ্দারের ছেলে তুর্য (২২), মহিষখোলার বাসিন্দা গাজী আমিনুর রহমানের ছেলে রাউফুর রহিম (২২) ও আলাদপুর এলাকার বাসিন্দা আব্দুল মান্নানের ছেলে সান (২৩)।

নিহতের পরিবার ও সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইলিয়াস হোসেন জানান,, নিহতরাসহ কয়েকজন বন্ধু মিলে সোমবার দুপুরের দিকে মোটরসাইকেল যোগে পদ্মা সেতু দেখতে যান। সেখান থেকে বাড়িতে ফেরার পথে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে মাওয়া-ভাটিয়াপাড়া-নড়াইল সড়কের নগরকান্দা জয়বাংলা মোড় এলাকায় পৌছালে বিপরীত দিক থেকে দ্রুত গতিতে আসা একটি মাইক্রোবাসের সাথে নিহতদের মোটর সাইকেলটির সাথে ধাক্কা লাগে। এসময় তুর্য ও রাউফুর রহিম ঘটনাস্থলে মারা যান। স্থানীয়রা গুরুতর আহত সানকে উদ্ধার করে প্রথমে মোকসেদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায় সেখানে থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হন। গোপালগঞ্জ এলাকায় পৌছালে এ্যাম্বুলেন্সের মধ্যে সান মারা যান। রাতেই তাদের মরদেহ নড়াইলে আনা হয়। সূত্র: বাসস


জুমবাংলানিউজ/একেএ