Views: 42

আন্তর্জাতিক জাতীয়

ফেলানি হত্যা মামলার শুনানি এবার ভারতের সুপ্রিম কোর্টে

জুমবাংলা ডেস্ক : শুক্রবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি ডি ওয়াই চন্দ্রচুড় এবং বিচারপতি কে এম যোশেফের সমন্বয়ে গঠিত ডিভিশন বেঞ্চ এই আপিলের শুনানি শুরু হয়। এদিন প্রাথমিক শুনানি শেষে আগামী ১৮ মার্চ পরবর্তী তারিখ ধার্য করেছেন আদালত।

২০১১ সালের জানুয়ারি মাসের এক শীতের সকালে সীমান্তে কাঁটাতারের বেড়ার ওপর ফেলানির মৃতদেহ যেভাবে ঝুলছিল, সেই মর্মান্তিক দৃশ্য আজও ভোলেনি বাংলাদেশ ও ভারতের মানুষ। তবে ওই ঘটনায় বিএসএফের অমিয় ঘোষ নামে যে কনস্টেবল গুলি চালিয়েছিল বলে অভিযোগ, সে বিএসএফ এর নিজস্ব বিচার প্রক্রিয়ায় অব্যাহতি পেয়ে গেছে।


সেই অব্যাহতিকে চ্যালেঞ্জ করেই ভারতের বেশ কয়েকটি মানবাধিকার সংগঠন সুপ্রিম কোর্টের শরাণাপন্ন হয়। তাদের দায়ের করা মামলাতেই অনেকদিন পর শুক্রবার সুপ্রিম কোর্টে এর শুনানি শুরু হয়েছে। সুপ্রিম কোর্টের কাগজপত্রে অবশ্য মামলাটি ‘মুহম্মদ নূর ইসলাম (ও আরও একজন ব্যক্তি) বনাম ভারত রাষ্ট্র (স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়)’ নামেই নথিবদ্ধ হয়েছে।

শুনানিতে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ফেলানি হত্যাকাণ্ডের জন্য বিএসএফকে নির্দোষ দাবি করেছেন। তার যুক্তি, শীতের সকালে ঘন কুয়াশার কারণে বিএসএফ সদস্যরা ফেলানিকে দেখতে পায়নি, তারা চোরাকারবারি সন্দেহেই কাঁটাতারের বেড়া টপকানোর সময় গুলি চালিয়েছিল।

বিএসএফের যে জওয়ানের গুলিতে ফেলানীর মৃত্যু হয়েছিল, সেই অমিয় ঘোষ নির্দোষ প্রমাণিত হন। বিএসএফের বিশেষ আদালত তাকে বেকসুর খালাস দেয়। এরপর বিএসএফের রায় পুনর্বিচার করার সিদ্ধান্ত হয়। পুনর্বিচারেও অমিয় ঘোষকে দোষী সাব্যস্ত করা যায়নি। এরপর ভারতের সুপ্রিম কোর্টে ন্যায়বিচার ও ক্ষতিপূরণের দাবিতে রায় পুনর্বিবেচনার আবেদন করা হয়।


আরও পড়ুন

বাংলাদেশের পাশে দাঁড়াল তুরস্ক, পাঠাচ্ছে পেঁয়াজ

globalgeek

গুলশানে দেহব্যবসার অভিযোগে ১৬ নারীসহ ২৮ জন আটক

Saiful Islam

বাড়ির ভেতরে গোপন সুড়ঙ্গ, মজুত থাকত বোমা

Shamim Reza

গুলশানে স্পা সেন্টারে অভিযান, নারীসহ গ্রেফতার ২৮

Shamim Reza

সৌদি আরবে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা

Shamim Reza

মুজিববর্ষ উপলক্ষে আবারও বিশেষ অধিবেশনের উদ্যোগ

Saiful Islam