ফ্লয়েডের হত্যাকারী সেই পুলিশ অফিসারকে নেয়া হল সুইসাইড ওয়াচে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : এতদিন কারাগারে শতশত অপরাধীকে নানা অপরাধে ঢুকিয়েছিলেন যিনি এখন সেই কারাগারই হলো তার ঠিকানা। তবে নতুন ঠিকানায় ভালো নেই শ্বেতাঙ্গ পুলিশ অফিসার ডেরেক চাওভিন। কারণ রাতদিন ২৪ ঘণ্টা ‘সুইসাইড ওয়াচে’ থাকতে হচ্ছে তাকে।

যুক্তরাষ্ট্রের মিনেসোটা অঙ্গরাজ্যের জর্জ ফ্লয়েড নামের ৪৬ বছর বয়সী এক কৃষ্ণাঙ্গ ব্যক্তিকে গত সপ্তাহে হত্যা করেন চাওভিন। ফেঁসে যান এক প্রত্যক্ষদর্শীর ধারণ করা ১০ মিনিটের ভিডিও ফুটেজে।

ভিডিওতে দেখা যায়, গলায় হাঁটু চেপে ধরায় ফ্লয়েড নিঃশ্বাস না নিতে পেরে কাতরাচ্ছেন এবং বলছেন, আমি নিঃশ্বাস নিতে পারছি না। ভিডিও ভাইরাল হলে চাওভিন চাকরি হারান। ইতিমধ্যে ‘থার্ড ডিগ্রি’ মার্ডারের অপরাধে অভিযুক্তও হয়েছেন।

চাওভিনকে শুক্রবার (২৯ মে) রাতে কারাগারে নেয়া হয়। বহুল আলোচিত মামলার আসামিদের যে সেলে রাখা হয়, তিনি সেখানে আছেন। পুরো সেল ক্যামেরা দিয়ে ঘেরা। ১৫ মিনিট পরপর দায়িত্বরত কর্মকর্তা ভিডিও ফুটেজ পরীক্ষা করে দেখছেন। চাওভিন কারাগারে ঢোকার সময় কারো চোখে চোখ রাখেননি। এসময় খালি গায়ে ছিলেন। পরীক্ষা শেষে জেলের নির্ধারিত পোশাক পরানো হয় তাকে।

খুনের মতো অপরাধ করায় ডেরেক চাওভিনের স্ত্রী কেলি চাওভিন ইতিমধ্যে তাকে ডিভোর্স লেটার পাঠিয়েছেন। ফ্লয়েডের মৃত্যুর পর আমেরিকায় তীব্র আন্দোলন শুরু হয়েছে। কৃষ্ণাঙ্গদের পাশাপাশি অনেক শ্বেতাঙ্গও এই আন্দোলনে সামিল হয়েছেন।


জুমবাংলানিউজ/এসআই

Add Comment