Views: 122

অর্থনীতি-ব্যবসা

বাংলাদেশের জন্য ২০০ মিলিয়ন ডলার অনুমোদন বিশ্ব ব্যাংকের

জুমবাংলা ডেস্ক : বাংলাদেশের গ্রামাঞ্চলে নিরাপদ পানি ও স্যানিটেশন সেবার প্রাপ্তি ও উন্নতিকল্পে এবং স্বাস্থ্যসম্মত অভ্যাস গড়ে তুলতে ২০০ মিলিয়ন ডলার অনুমোদন দিয়েছে বিশ্ব ব্যাংক। শনিবার এ অনুমোদন দেয় সংস্থাটি।

এ অর্থ ‘বাংলাদেশ রুরাল ওয়াটার, স্যানিটেশন অ্যান্ড হাইজিন ফর হিউম্যান ক্যাপিটাল ডেভেলপমেন্ট প্রোজেক্ট’-এ ব্যয় করা হবে। এ প্রকল্প গ্রামীণ অঞ্চলে প্রায় ৬ লাখ মানুষকে নিরাপদ ও বিশুদ্ধ পানি পেতে সহায়তা করবে। এছাড়া এ প্রকল্প ৩.৬ মিলিয়নেরও বেশি গ্রামীণ মানুষকে উন্নত স্যানিটেশন সেবা সরবরাহ করবে।

ময়মনসিংহ, রংপুর, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের ৭৮টি উপজেলার আওতাধীন এ প্রকল্প বাড়িতে ও পাবলিক প্লেসে পানি, স্যানিটেশন ও স্বাস্থ্যকর সুবিধাগুলোর আরও ভালো প্রাপ্তি নিশ্চিত এবং জনগণকে যথাযথভাবে হাতধোয়ার অভ্যাস গড়ে তুলতে উদ্বুদ্ধ করার মধ্য দিয়ে রোগ প্রতিরোধে সহায়তা করবে। একই সঙ্গে এটি কোভিড-১৯ মহামারিসহ সংক্রামক রোগের প্রাদুর্ভাব থেকে রক্ষা করবে।

বাজার, বাস স্টেশন ও কমিউনিটি ক্লিনিকগুলোর মতো জনাকীর্ণ পাবলিক স্পেসগুলোতে প্রকল্পের আওতায় ২ হাজার ৫১৪টি হাতধোয়ার স্টেশন করবে। যাতে পানি, নিষ্কাশন ও স্যানিটেশন সুবিধার পাশাপাশি ওভারহেড ট্যাঙ্ক ও সাবানের ব্যবস্থা থাকবে।


বিশ্বব্যাংকের কান্ট্রি ডিরেক্টর (বাংলাদেশ ও ভুটান) মের্সি টেম্বন বলেন, সবার জন্য প্রয়োজনীয় পানির প্রাপ্তি নিশ্চিত করা এবং খোলাস্থানে মলত্যাগ বন্ধের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি করেছে। তবে পানি ও স্যানিটেশনের মান এবং নিরাপদ পানি, স্যানিটেশন ও জীবনমান উন্নয়নের মধ্যে যোগসূত্র একটি চ্যালেঞ্জ হিসেবে রয়ে গেছে।

তিনি আরও বলেন, এই প্রকল্পটি নিরাপদ পানি ও স্বাস্থ্যসম্মত স্যানিটেশন সেবা প্রদান করবে, যা ডায়রিয়াজনিত রোগ হ্রাস করবে; পুষ্টি ও স্বাস্থ্য উন্নত করবে। বিশেষত দুর্বল জনগোষ্ঠীকে উপকৃত করবে। এটি দেশকে দারিদ্র্য হ্রাস ও অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিকে ত্বরান্বিত করতে সহায়তা করবে।

বিশ্বব্যাংকের জ্যেষ্ঠ পানি বিশেষজ্ঞ ও টিম লিডার রোকেয়া আহমেদ বলেন, জলবায়ুগত পরিবর্তনের প্রভাবে ক্ষতিগ্রস্ত ও সবচেয়ে বেশি সংবেদনশীল দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশ অন্যতম। চরম আবহাওয়া ও জলবায়ুগত পরিবর্তনের প্রভাব পানীয়জলের গুণগতমান এবং সহজলভ্যতা হ্রাস করে, যা স্বাস্থ্যকর ব্যবস্থাকে প্রভাবিত করে। তাই এ প্রকল্প জলবায়ুর প্রভাবসহায়ক বিশুদ্ধ পানি ও স্যানিটেশন সুবিধা তৈরি করবে। একই সঙ্গে পয়ঃনিষ্কাশন ব্যবস্থাপনার উন্নতি করে ভূমি ও ভূগর্ভস্থ পানির দূষণ হ্রাস করবে।

প্রকল্পের আওতায় স্যানিটারি ন্যাপকিন বিক্রির জন্য প্রায় দেড়শ নারী উদ্যোক্তাকে ক্ষুদ্রঋণ সরবরাহ করা হবে। এছাড়া এটি কমিউনিটি পর্যায়ে পানি ব্যবস্থাপনা কমিটিগুলোতে নারীদের প্রতিনিধিত্ব ও নেতৃত্ব উৎসাহিত করবে।

এতে স্বাস্থ্যবিধি অনুশীলনের জন্য আচরণগত সচেতনতার প্রচার চালাতে এবং হাতধোয়া, শিশুর পরিচ্ছন্নতা ও মাসিকের স্বাস্থ্যবিধি সম্পর্কে নিয়মিত প্রশিক্ষণ দেওয়ার জন্য কমিউনিটি স্বাস্থ্যকর্মীদের ব্যবহার করা হবে। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।


যাদের বাচ্চা আছে, এই এক গেইমে আপনার বাচ্চার লেখাপড়া শুরু এবং শেষ হবে খারাপ গেইমের প্রতি আসক্তিও।ডাউনলোডকরুন : https://play.google.com/store/apps/details?id=com.zoombox.kidschool


আরও পড়ুন

৭ মাস পর পর্যটকদের জন্য উন্মুক্ত হচ্ছে সুন্দরবন

azad

প্রবাসীদের ফিরে যেতে সৌদি আরবে ৪টি বিশেষ ফ্লাইট চালাবে বিমান

rony

মোবাইল ব্যাংকিংয়ে নতুন সুবিধা

rony

ইসলামী ব্যাংক চট্টগ্রাম সাউথ জোনের উদ্যোগে ওয়েবিনার অনুষ্ঠিত

mdhmajor

নতুন ৪৩টি পণ্য বাধ্যতামূলক মান সনদের আওতাভুক্ত করল বিএসটিআই

mdhmajor

যুক্তরাজ্যে সব স্টোর বন্ধ করছে গ্যাপ!

Mohammad Al Amin