in ,

বাচ্চাদের সাঁতার শেখাতে গিয়ে নিজেই লাশ

জুমবাংলা ডেস্ক : লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে বিমান বাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত উইং কমান্ডার পাইলট কাজী মফিজুর রহমান (৪১) ছেলেমেয়েকে পুকুরে সাঁতার শেখাচ্ছিলেন। হঠাৎ হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে পানিতে ডুবে তাঁর মৃত্যু হয়।

আজ শনিবার (১৬ অক্টোবর) দুপুরে পৌরসভার মধ্য কেরোয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত মফিজুর এলাকার মৃত কাজী সিদ্দিকুর রহমানের ছেলে। তাঁর স্ত্রী, এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে।

পারিবারিক সূত্র জানায়, মফিজুরের মরদেহ দুপুরেই রাজধানীর বাসায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে। বিমানবাহিনীর শাহিন গ্রেবিয়েটের (জাহাঙ্গীর গেটের ভেতরে) পাশের মসজিদে এশার পর নামাজের জানাযা শেষে সেখানেই মরদেহ দাফন করা হবে।

তিনি লক্ষ্মীপুর-২ আসনের সাবেক সাংসদ কুয়েতে কারাবন্দি কাজী শহীদ ইসলাম পাপুল এবং সাবেক তথ্য সচিব কাজী নাজমুল আলম সিদ্দিকীর চাচাতো ভাইয়ের ছেলে।

নিহতের স্বজন কাজী এরফান জানান, মফিজুর রহমান ১৯ বছর চাকরি জীবন শেষে স্বেচ্ছায় অবসর নিয়েছেন। গত দুই বছর বেসরকারি একটি বিমানের পাইলট হিসেবে কর্মরত ছিলেন। প্রতিবারের মতো এবারও বৃহস্পতিবার (১৩ অক্টোবর) ছুটিতে গ্রামের বাড়িতে বেড়াতে আসেন। শনিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে একই এলাকার ৭ জন অসহায় পরিবারকে সেলাই মেশিন দান করেন। দুপুর ১২টার সময় বাড়ির পুকুরে ছেলেমেয়েকে সাঁতার শেখাচ্ছিলেন। এ সময় হঠাৎ বুকে ব্যথা উঠে তিনি পুকুরে ডুবে যান। তখন ছেলে-মেয়ের চিৎকারে স্বজনরা এগিয়ে এসে মফিজুরকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ ব্যাপারে রায়পুর পৌরসভার ৮নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আবুল হোসেন বলেন, মফিজুর রহমানের অকালে মৃত্যু আমাদের ব্যথিত করেছে। শোকাহত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি।