বিগো ও লাইকির আড়ালে হচ্ছে দেহ ব্যবসা: চাঞ্চল্যকর তথ্য দিলো সিআইডি

জুমবাংলা ডেস্ক : লাইভ স্ট্রিমিং অ্যাপস বিগো ও লাইকির আড়ালে হচ্ছে দেহ ব্যবসা। অবাক হলেও এমন চাঞ্চল্যকর তথ্য পেয়েছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ-সিআইডি। পাচার করা হয় অর্থও।

রবিবার সকালে সিআইডি কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানিয়েছে সিআইডি।

সিআইডি বলছে, এসব অ্যাপসের মাধ্যমে বিভিন্ন আপত্তিকর ভিডিও ছড়ানো হয়। আর এ অভিযোগে এক বিদেশিসহ চারজনকে গ্রেফতার করেছে সংস্থাটি। লাইভ স্ট্রিমিং অ্যাপসের মাধ্যমে মানি লন্ডারিং বন্ধে বাংলাদেশে অ্যাপস কর্তৃপক্ষের প্রতিনিধি রাখা জরুরি বলে মনে করে সিআইডি। বর্তমানের নেট দুনিয়ায় উঠতি বয়সীদের কাছে তুমুল জনপ্রিয় লাইভ স্ট্রিমিং অ্যাপস বিগো ও লাইকি। শুরুর দিকে অ্যাপস দুটি সামাজিক যোগাযোগ ও বিনোদনের মাধ্যম হিসেবে ব্যবহার হতো।

তবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী বলছে, বিনোদনের আড়ালে হচ্ছে দেহ ব্যবসা। ডিজিটাল ডায়মন্ড কেনার অজুহাতে বিদেশে পাচার করা হচ্ছে অর্থ। এছাড়া নানা ধরনের অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডও হচ্ছে এসব অ্যাপসের আড়ালে। এমন অভিযোগে ১ বিদেশি নাগরিকসহ পাঁচ জনকে গ্রেফতার করেছে সিআইডি।

রবিবারের ব্রিফিংয়ে সিআইডি আরও জানায়, এই অ্যাপসের ডিজিটাল মুদ্রা ব্যবহারকারীদের কাছে পৌঁছে দিতে রয়েছে বিভিন্ন এজেন্সি। যার দায়িত্বে আছেন বিদেশিরা। আর তাদের সহযোগিতা করছেন বাংলাদেশি এজেন্টরা। ভিডিও স্ট্রিমিং অ্যাপসগুলোর মাধ্যমে আপত্তিকর ভিডিও ছড়ানো হয়। এ অভিযোগে বেশ কিছু আইডি বন্ধে চিঠি দেয়া হয়েছে বিটিআরসিকে।


জুমবাংলানিউজ/এসআর