বিনোদন

বিজ্ঞাপন করতে গিয়ে প্রেম, চার মাস পরে বিয়ে

বিনোদন ডেস্ক : আসছে শীত। আসছে অনেক বিয়ের খবর। মিথিলা-জয়া আহসানের বিয়ের খবরে যখন সরগরম মিডিয়া। তখন আসলো আরও এক বিয়ের খবর। সম্প্রতি বিয়ে করেছেন তরুণ চিত্রনায়ক শিবলী নোমান ও মডেল অভিনেত্রী নিশাত প্রিয়ম।

চার মাসের পরিচয় তাদের। এরই মধ্যে একে অপরকে বুঝে বিয়েটা সেরে ফেলেছেন তারা। গত ফেব্রুয়ারি মাসে একটি বিজ্ঞাপনের জুটি হয়েছিলেন শিবলী নোমান ও নিশাত প্রিয়ম। সেই সময়ই তাদের একে অপরেরর মধ্যে ভালোলাগা তৈরি হয়। সেই ভালোলাগা ভালোবাসায় গড়াতে না গড়াতেই বিয়ে।

শিবলী নোমান বলেন, ‘আমাদের বিয়েটা না অ্যারেঞ্জ না প্রেমের। বিয়ের সিদ্ধান্তটা আমাদের পরিবারই নিয়েছে। আমরা আমাদের পছন্দের বিষয়টি পরিবারের কাছে শেয়ার করেছি। দুই পরিবারের আলোচনা শেষে, আমাদের পরিচয়ের দেড় মাসের মাথায় আঙটি বদল হয়। চার মাসের মাথায় ১১ অক্টোবর বিয়ে হয়।’

শিবলী জানান, দুই পরিবারের উপস্থিতিতে মিরপুর ডিওএইচএস এলাকার একটি রেস্টুরেন্টে ঘরোয়া পরিবেশে তাদের বিয়ে হয়। নতুন বছরের শুরুতেই হবে বিয়ের অনুষ্ঠান।

শিবলী বলেন, ‘স্ত্রী নিশাত আমার খুব ভালো বন্ধু। আমাদের পরিচয় কম সময়ের হলেও বোঝাপড়া খুব মজবুত। আমরা দুজনই নিয়মিত কাজ করছি। আমাদের নতুন জীবনের জন্য সবাই দোয়া করবেন।’

২০১৭ সালের জানুয়ারিতে মিজানুর রহমান লাবু পরিচালিত ‘তুখোড়’ সিনেমার মাধ্যমে চলচ্চিত্রে অভিষেক হয় নোমানের। এরপর ইমপ্রেস রবিন খানের ‘মন দেব মন নেব’ সিনেমায় মাহির বিপরীতে অভিনয় করেন। বর্তমানে বিজ্ঞাপন ও দীপ্ত টিভির ‘মান অভিমান’ সিরিয়ালে কাজ করছেন শিবলী।

নিশাত প্রিয়ম বিশ্বরঙ এর আয়োজনে ‘শারদ সাজে বিশ্বরঙ’ প্রতিযোগিতায় প্রথম রানারআপ হয়েছিলেন। এরপর বিজ্ঞাপন, মিউজিক ভিডিও ছাপিয়ে ছোটপর্দায় নিয়মিত হয়েছেন। সর্বশেষ তিনি হৈচৈ-এর জন্য নির্মিত ‘মানি হানি’ ওয়েব সিরিজে কাজ করেন।



জুমবাংলানিউজ/এসআর




আপনি আরও যা পড়তে পারেন


সর্বশেষ সংবাদ