বেঁদে পল্লীর ঝরে পড়া শিশুদের জন্য ছাত্রলীগের শেখ রাসেল পাঠশালা

সাইফুল ইসলাম, মানিকগঞ্জ: “শিক্ষা-শান্তি-প্রগতি” ছাত্রলীগের মূলনীতি বাস্তবায়নে মানিকগঞ্জে ভাসমান বেঁদে পল্লীতে ছাত্রলীগের উদ্যোগে শেখ রাসেল পাঠশালার ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করা হয়েছে।

বুধবার (১৪ জুলাই) দুপুর ১২টার দিকে সদর উপজেলার জাগীর এলাকায় অসহায় বেঁদে পল্লীর ঝরে পড়া শিশুদের লেখাপড়ার জন্য অস্থায়ীভাবে শেখ রাসেল পাঠশালা নামে একটি বিদ্যালয়ের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন মানিকগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সদ্য সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক এম এ সিফাদ কোরাইশী সুমন।

বেঁদে পল্লীর বাসিন্দা সোরহাব বলেন, জীবিকার তাগিদে আমরা সারা বছর দেশের এক প্রান্ত থেকে আরেক প্রান্তে ঘুরে বেড়াই। আমাদের ছেলে মেয়েরা লেখাপড়া করার সুযোগ পায়না। মানিকগঞ্জ জেলার ছাত্রলীগ নেতা সুমন ভাই আমাদের ছেলে মেয়েদের লেখাপড়ার কথা চিন্তা করে একটা স্কুল বানিয়ে দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছে। স্কুলটি হলে এখানে আমাদের ছেলে মেয়েরা পড়ালেখার সুযোগ পাবে। এটা আমাদের জন্য খুবই আনন্দের। ছাত্রলীগ নেতা সুমনের জন্য দোয়া করি সে যেন সারাজীবন আমাদের মত অসহায় মানুষের সাহায্য সহযোগিতা করতে পারে।

ছাত্রলীগ নেতা সুমন বলেন, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ভাইয়ের নির্দেশনায় অসহায় ছিন্নমূল বেঁদে পল্লীর ঝরে পড়া এসব শিশুদের জন্য জীবন মান উন্নয়নে এবং উজ্জল ভবিষ্যৎ গড়তে শেখ রাসেল পাঠশালা নামে এই অস্থায়ী বিদ্যালয় নির্মাণের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে মানিকগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগ নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। প্রধানমন্ত্রীর নিদের্শে নিরক্ষরমুক্ত জাতি গঠনের অংশ হিসেব আমার এই ক্ষুদ্র প্রয়াস। এই অসহায় ঝরে পড়া শিশুদের জন্য জেলা ছাত্রলীগের সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে।


জুমবাংলানিউজ/এসআই