ক্রিকেট (Cricket) খেলাধুলা

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীকে ক্রিকেট নিয়ে প্রশ্ন ছুড়ে দিলেন পিটারসেন

স্পোর্টস ডেস্ক : দেশে নারী ফুটবলের ভবিষ্যৎ দারুণ। নারীদের জুনিয়র ফুটবল দলের সঙ্গে ম্যাচ খেলেছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। ১০ বছর বয়সী মেয়েদের সঙ্গে খেলার ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে সেই কথাই লিখেছেন তিনি। এরপর ক্রিকেট নিয়ে তাকে প্রশ্ন করলেন দেশের সাবেক ক্রিকেটার কেভিন পিটারসেন।

বলার অপেক্ষা রাখে না, ইংল্যান্ড মানেই ফুটবল নিয়ে উত্তেজনা-মাতামাতি। ব্রিটিশবাসীদের কাছে এ খেলার প্রতি আলাদা ভালোবাসা-কদর রয়েছে। সেই সঙ্গে ক্রিকেটকেও সমান গুরুত্ব দেন তারা।

অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে অ্যাশেজ সিরিজ নিয়ে দেশে ক্রিকেট উন্মাদনা ছিল তুঙ্গে। চলতি বছর ক্রিকেটে ইংল্যান্ডের সাফল্যও ঈর্ষণীয়। ঘরের মাঠে ওয়ানডে বিশ্বকাপ জিতেছে তারা। ৪৪ বছরের বিশ্বকাপের ইতিহাসে এই প্রথমবার ট্রফি ছুঁয়ে দেখেছেন ইংলিশরা।

এরপর দেশের মাটিতে ঐতিহ্যবাহী অ্যাশেজ সিরিজে পিছিয়ে থেকে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে প্রত্যাবর্তন করে সিরিজ ড্র করেছে ইংল্যান্ড। বিশ্বকাপের মতো এখানেও দলটির নায়ক বেন স্টোকস। হেডিংলিতে একা হাতে শেষ উইকেটে ক্রিজে টিঁকে থেকে ম্যাচ জিতিয়ে অ্যাশেজ সিরিজে দলকে সমতায় ফেরান তিনি। শেষ পর্যন্ত সিরিজ শেষ হয় ২-২ ব্যবধান।

বলা বাহুল্য, ফুটবলের চেয়ে এ বছর ক্রিকেটেই বেশি সাফল্য পেয়েছে ইংল্যান্ড। গেল বছর রাশিয়া ফুটবল বিশ্বকাপে শেষ চারে ওঠেন ইংলিশরা। শেষ অবধি চতুর্থ দল হিসেবে বৈশ্বিক টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নেন তারা।

তুলনায় ২০১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন হয়ে মাঠ ছাড়ে ইংল্যান্ড। ফাইনালে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে শ্বাসরূদ্ধকর জয়ের নায়ক ছিলেন বিগ বেন। দেশটির নারী ক্রিকেট দলও সফল। এখন পর্যন্ত ৪বার ওয়ানডে এবং ১বার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জিতেছে তারা।

ফুটবলের চেয়ে ক্রিকেটে বেশি সাফল্যে দেশের ক্রীড়াভক্তদের মুখে হাসি ফুটেছে। পুরুষদের পাশাপাশি ইংল্যান্ডের নারীরাও ক্রিকেটে উন্নতি করে চলেছে। তাই এ ক্রীড়াক্ষেত্রে বিনিয়োগ চাইছেন পিটারসেন।

বরিস জনসন এক টুইটে লিখেছেন, দেশের নারী ফুটবলের উন্নয়নে ৫০০ মিলিয়ন পাউন্ড বিনিয়োগ হতে চলেছে। পরিপ্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রীকে প্রশ্ন করেন ক্রিকেটার। তার কাছে কেপি জানতে চান, মেয়েদের ক্রিকেটে কত কোটি টাকা বিনিয়োগ হতে চলেছে?


জুমবাংলানিউজ/এসআর




আপনি আরও যা পড়তে পারেন


সর্বশেষ সংবাদ