in ,

ভাতিজাকে হত্যা করে মাটির নিচে পুঁতে রাখেন ফুফু

জুমবাংলা ডেস্ক : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরে ভাতিজাকে হত্যা করে মাটির নিচে পুঁতে রাখার অভিযোগ উঠেছে ফুফা-ফুফুর বিরুদ্ধে। সোমবার নবীনগর থানা পুলিশ নিহতের মাথার খুলি ও শরীরের বিভিন্ন হাড় উদ্ধার করেছে। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে ফুফা মনসুর মিয়া ও ফুফু সুরিয়া আক্তারকে আটক করা হয়।

জানা যায়, উপজেলার ইব্রাহিমপুর ইউনিয়নের কালিকাপুর গ্রামের তাজুল ইসলামের ছেলে মাহিম (১৪) চলতি বছরের মার্চ মাসে বাড়ি থেকে ট্রাক্টর নিয়ে বের হয়ে নিখোঁজ হয়। এর দীর্ঘদিন পর সোমবার ইব্রাহিমপুর ইউনিয়নের সাবেক মেম্বার শুক্কু মিয়া পুকুরের উত্তর পূর্ব কোনায় মাটি কাটার সময় মাথার খুলি ও শরীরের বিভিন্ন অংশের হাড় উদ্ধার করে। পরে জানা যায় উদ্ধার হওয়া শরীরের এসব বিভিন্ন অংশ নিখোঁজ মাহিমের।

মাহিমের বাবা তাজুল ইসলাম জানান, আমার বোন ও তার স্বামী খারাপ প্রকৃতির হওয়ায় মেলামেশা করতে দিতাম না। তারা আমার সন্তানকে হত্যা করে মাটির নিচে পুঁতে ফেলে। এই ঘটনায় নিহতের মা বাদী হয়ে নবীনগর থানায় মামলা দায়ের করেন।

নবীনগর থানার ওসি (তদন্ত) নুরে আলম বলেন, ঘটনাস্থল থেকে মাথা ও হাড় উদ্ধার করা হয়েছে। ফুফা ও ফুফুকে আটক করা হয়েছে।