ভোরে দেশ ছাড়ছেন সাবেক আইনমন্ত্রীর পুত্রবধূ ও দুই নাতনি

অবশেষে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে করোনার নেগেটিভ সনদ হাতে পেয়ে আমেরিকার উদ্দেশ্যে আগামীকাল সোমবার ভোরে দেশ ছাড়ছেন সাবেক আইনমন্ত্রী ব্যারিস্টার শফিক আহমেদের পুত্রবধূ ও দুই নাতনি। আজ রবিবার ব্যারিস্টার শফিক আহমেদের ছেলে মাহফুজ শফিক এ তথ্য জানান। একটি প্রতিষ্ঠানের ভুয়া করোনার সনদের কারণে গত ৯ জুলাই ওই তিনজনের আমেরিকা যাত্রা বন্ধ হয়ে যায়।

গত ৯ জুলাই ভোর ৪টা ২৫ মিনিটে কাতার এয়ারওয়েজের ফ্লাইটে ব্যারিস্টার শফিক আহমেদের ছেলে মাহফুজ শফিকের স্ত্রী ও দুই মেয়ের যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়ার কথা ছিলো। এজন্য গত ৭ জুলাই বিকেল ৫টার দিকে প্রাভা হেলথ নামের একটি প্রতিষ্ঠানে কোভিড-১৯ টেস্টের সনদ নিতে তিনজনের নমুনা জমা দেওয়া হয়। ওই দিন রাত ১২টার দিকে ফোনে ম্যাসেজ দিয়ে জানানো হয় তারা তিনজনই করোনা পজেটিভ। ওদের কোনোধরনের উপসর্গ না থাকায় সন্দেহ হয়। এরপর তারা ওই দিন রাত দেড়টার দিকে গ্রীন লাইফ হাসপাতালে নমুনা দেন। সেখান থেকে রিপোর্ট নেগেটিভ আসে। পরদিন ৮ জুলাই আইইডিসিআর তাদের বাড়ি থেকে পরিবারের সকল সদস্যসহ মোট ২০ জনের নমুনা নিয়ে যায়। ৯ জুলাই রাত ১২টায় ইমেইলে রিপোর্ট পাঠানো হয়। সেখানের পরীক্ষায়ও সবার রিপোর্ট নেগেটিভ আসে। এই ভুল রিপোর্টের কারণে তিনজন আর যুক্তরাষ্ট্র যেতে পারেননি।

বিষয়টি জানিয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রী ও সচিব, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এবং র‌্যাব মহাপরিচালকের কাছে লিখিত অভিযোগ দাখিল করা হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে গণমাধ্যমে প্রতিবেদন প্রকাশিত হলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর তদন্ত কমিটি গঠন করে। এই কমিটি বিষয়টি তদন্ত করছে। এরইমধ্যে আইইডিসিআর এর পক্ষ থেকে ১৭ জুলাই শুক্রবার নতুন করে তাদের নমুনা নেয়। এবারও তাদের রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। এই সনদ নিয়ে সাবেক আইনমন্ত্রীর পরিবারের সদস্যরা আজ ভোর সাড়ে চারটায় একই এয়ারলাইনসের বিমানে আমেরিকা যাচ্ছেন।


জুমবাংলানিউজ/ জিজি