মাথায় বাঘের কামড়ের পরও যেভাবে বেঁচে গেলেন যুবক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : একসঙ্গে দুই বাঘ আক্রমণ করেছিল তাকে। এমনকি মাথাও কামড়ে ধরেছিল তার। নিজের দুই সঙ্গীকে হারালেও অলৌকিকভাবে বেঁচে গিয়েছেন এক যুবক।

ভারতের উত্তর প্রদেশের পিলভিত শহরে এই ঘটনা ঘটে বলে ব্রিটিশ গণমাধ্যম ইনডিপেডেন্ট এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে।

বিকাশ কুমার নামে ২৩ বছর বয়সী ওই যুবক জানান, পিলভিত শহরের কাছে ঘন জঙ্গলের পাশ দিয়ে তিনি আর তার দুই বন্ধু মোটরসাইকেলে যাচ্ছিলেন।

এ সময় রাস্তায় বাঘগুলোকে দেখে মোটরসাইকেল চালক ভয় পেয়ে দুর্ঘটনার কবলে পড়েন। তারা মোটরসাইকেল থেকে ছিটকে পড়লে বাঘ তাদের আক্রমণ করে।

বাঘগুলো মুহূর্তের মধ্যেই সনু কুমার (৩৩) আর কানধাই লাল (৩৫) নামের দুই যুবককে আক্রমণ করে মেরে ফেলে।

এ সময় মোটরসাইকেলের যাত্রীর আসনে থাকা বিকাশের মাথাতেও বাঘ কামড় বসায়। কিন্তু মাথায় হেলমেট থাকায় আঘাত থেকে বেঁচে যান বিকাশ। এরপর দৌঁড়ে একটা গাছে উঠে প্রাণ বাঁচান তিনি।

সেদিনের স্মৃতিচারণ করে বিকাশ বলেন, ওই রাতের অভিজ্ঞতা আমি কখনোই ভুলবো না।

তিনি জানান, বাঘগুলো আক্রমণ করার সময় ওরা চিৎকার করছিলেন। সনুকে আমার সামনেই মেরে ফেলে। আমি ভীষণ ভয় পেলেও গাছে উঠার সাহস সঞ্চয় করেছিলাম। আমি গাছে উঠে একদম নড়াচড়া করছিলাম না। শুধু চোখ বন্ধ করে সৃষ্টিকর্তাকে স্মরণ করছিলাম। আমি নিশ্চিত জানতাম আমার খোঁজ পেলে আমাকেও শেষ করে দিত ওরা। ওরা (বাঘ) গাছে চড়তেও জানে।

সারারাত ধরে গর্জন করতে করতে বাঘ তাকে খুঁজছিল বলে জানান বিকাশ। সকালে সাহায্য আসার আগ পর্যন্ত গাছেই কাটিয়ে দেন তিনি।

বিকাশ জানান, ওই রাস্তা ধরে না যাওয়ার জন্য স্থানীয়রা তাদের সতর্ক করেছিলেন। কিন্তু বাড়ি ফেরার তাড়া থাকায় সে কথায় কান দেননি তারা।


জুমবাংলানিউজ/এসআই