in , ,

মাদক মামলায় হাজিরা দিতে আদালতে পরীমনি

নিজস্ব প্রতিবেদক: মাদক মামলায় হাজিরা দিতে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে পৌঁছেছেন এ সময়ের সবচেয়ে আলোচিত নায়িকা পরীমনি। সকাল ১০টা ৫০ মিনিটে তিনি আদালত প্রাঙ্গনে পৌঁছান। এ সময় তাকে এক নজর দেখার জন্য শত শত ভক্ত ভিড় করেন।

আজ মামলাটির তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য দিন ধার্য রয়েছে।

পরীমনির আইনজীবী মজিবুর রহমান জানান, ‘আজ মামলাটির তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য দিন ধার্য রয়েছে। তার কিছু মালামাল জব্দ করা হয়েছে। আজ সেই বিষয়ে আদালতকে তিনি কিছু বলতে চান।’

এদিকে দীর্ঘ ২৭ দিন কারাবাসে থাকার ফলে মানসিকভাবে কিছুটা ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছেন পরীমণি। গায়ে হালকা জ্বর, সেই সঙ্গে ভার্টিগো রোগের কারণে সম্প্রতি চিকিৎসকের শরণাপন্ন হয়েছিলেন নায়িকা। হাসপাতালে বেশিক্ষণ থাকতে হয়নি তাকে। চেকআপ করিয়ে বাসায় ফিরেছেন তিনি।

এর আগেই জানা যায়, ভার্টিগো নামের একটি রোগে আক্রান্ত পরীমনি। অনেক দিন ধরেই রোগটি তাকে ভোগাচ্ছে। প্রায়ই হাসপাতালে ছুটতে হয় তাকে। এ জন্য ভারতে গিয়েও চিকিৎসা নিয়েছেন তিনি। কিন্তু পুরোপুরি আরোগ্য লাভ করতে পারেননি।

সম্প্রতি তরুণ নির্মাতা ইফতেখার শুভর ‘মুখোশ’ দিয়ে চলচ্চিত্রের কাজে ফিরেছেন পরীমনি। ডাবিং এর কাজে দুদিন অংশও নিয়েছেন তিনি। শোনা যাচ্ছে, খুব শীঘ্রই শুটিংয়েও অংশ নিবেন পরীমনি। বিপ্লবী প্রীতিলতা ওয়াদ্দেদারের জীবন অবলম্বনে নির্মাণাধীন ‘প্রীতিলতা’ সিনেমার ক্যামেরার সামনে দাঁড়াতে পারেন নায়িকা।

গত ৪ আগস্ট বিকালে বনানীতে পরীমনির বাসায় অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ মাদকদ্রব্যসহ তাকে আটক করে র‌্যাব। পরের দিন প্রেস ব্রিফিংয়ে এই অভিনেত্রীকে আটক করার কারণ জানানোর পাশাপাশি তার বিরুদ্ধে বনানী থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা একটি মামলা করে র‌্যাব। এই মামলায় পরীমনিকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়। তিন দফায় সাত দিনের রিমান্ড শেষে তাকে পাঠানো হয় গাজীপুরের কাশিমপুর কারাগারে।

এরপর ৩১ আগস্ট ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েশ পরীমনিকে জামিন দেন। জামিন আদেশ কারাগারে পৌঁছালে পরদিন সকালে তিনি কারামুক্ত হয়ে বাসায় ফেরেন।