আন্তর্জাতিক

মালাবদলের সময় বরের নাগিন ড্যান্স দেখে বিয়ে ভেঙে দিলেন কনে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : মালাবদলের সময় বরের উদ্দাম নাচে বিরক্ত হয়ে বিয়ে ভেঙে দিলেন এক কনে। জানা গেছে, গত ৮ নভেম্বর মালাবদলের সময় মদের নেশায় ডিজে চালিয়ে উদ্যম নাগিন ড্যান্স করতে থাকেন পাত্র ও বরযাত্রীদের একাংশ। আর তাই বিয়ে ভেঙে যায়।

ভারতের উত্তরপ্রদেশের লখিমপুর খেড়ির বাসিন্দা বরের নাচের বিরক্ত হয়েই সঙ্গে সঙ্গে বিয়ে বাতিলের সিদ্ধান্ত নিলেন কনে। এ সময় খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিবেশ শান্ত করে।

তবে কনে তার সিদ্ধান্তে অটল। এ সময় বরপক্ষে বিবাহের উপহার ফেরত দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। আইটিআই ডিপ্লোমা কন্যার পাত্রটি কলেজও পাস করতে পারেননি বলে জানা যায়।

টাইমস অব ইন্ডিয়া জানিয়েছে, বরযাত্রী আসার পরেই তার বন্ধুরা তুমুল নাচ শুরু করেন। যখন মেয়ের পরিবার ডিজে চালাতে বারণ করেন, তখন তারা অসভ্যতা শুরু করেন বলে অভিযোগ। পরে বর রিতেশকে বুঝিয়ে সরিয়ে এনে মালাবদলের আয়োজন করা হয়। কিন্তু এর পর ফের ডিজে ফ্লোরে চলে যান

রিতেশ এবং জোরে গান বাজিয়ে নাগিন ড্যান্স করতে শুরু করেন। বরের এই আচরণের কারণে বিয়ে ভেঙে যায়।

কনের ভাই টাইমস অব ইন্ডিয়াকে বলেন, বিয়ে নিয়ে কোনো ভাবনাই ছিল না বরের। তাদের আচরণ সহ্য করার মতো নয়। বোনের বিয়ে ভেঙে গেছে বলে খারাপ লাগছে। তবে আমরা ওর সিদ্ধান্তের সমর্থনেই রয়েছি। আমার বোন যা করেছে তা একেবারে ঠিক।

এ বিষয়ে এসআই বিপিন সিং বলেন, অভিযোগ পাওয়ার পর আমরা ঘটনাস্থলে যাই। পরিবারের বড়দের সঙ্গে পরামর্শ করেই বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা করি। পাত্র লিখিতভাবে জানিয়েছে, ১৪ নভেম্বরের মধ্যে বিবাহের উপহার ফেরত দেবে এবং বিয়ের সম্পূর্ণ খরচও দেবে। সূত্র: এনডিটিভি



জুমবাংলানিউজ/এসএস




আপনি আরও যা পড়তে পারেন


সর্বশেষ সংবাদ