মা হারা সন্তানদের পিঠে নিয়ে সাঁতার কেটে ভাইরাল রাজহাঁস

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : রাজহাঁস বরাবরই পরিবারবদ্ধ পাখি। নিজের পরিবারের সঙ্গে মিলে-মিশে জীবন কাটাতে পছন্দ করে এরা। মানুষের মতোই খেয়াল রাখে সন্তানদের। সেরকমই এক ঘটনা দেখা গেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুসেট্‌স অঙ্গরাজ্যে।

এক রাজহাঁসের ধবধবে ডানা দু’টো পিঠের ওপর আগলে রেখেছে ৩ সন্তানকে। চতুর্থ জনের জায়গা হয়নি, তবে সেও সাদা পালকের লেজের গা ঘেঁষে এগিয়ে চলেছে বাবার পাশে পাশে। বস্টনের এক হংস পরিবারের এই ‘বেঁধে বেঁধে থাকার’ ছবি দেখে আবেগে ভাসছেন নেটাগরিকরা।

ছেলেমেয়েদের সঙ্গে নিয়ে বাবা রাজহাঁসের সময় কাটানোর এই দৃশ্য ধরা পড়েছে পেশাদার আলোকচিত্রী ম্যাথু রইফম্যানের ক্যামেরায়। তিনটি ছবি নিজের ইনস্টাগ্রামে দিয়েছেন ম্যাথু। তাতে দেখা যাচ্ছে দু’টি ডানার ভরে পিঠের উপর তিন ছানাকে বসিয়ে হ্রদে সাঁতার কেটে এগিয়ে যাচ্ছে বাবা রাজহাঁস। বাবার গা ঘেঁষে জলে সাঁতরাতে দেখা যাচ্ছে পিঠে জায়গা না হওয়া আরেক সন্তানকেও।

ছবির ক্যাপশনে ম্যাথু ওই রাজহাঁসকে ‘সিঙ্গেল ফাদার’ বা ‘একলা বাবা’ বলে বর্ণনা করেছেন। জানিয়েছেন তাদের দুঃখের গল্পও। ম্যাথু লিখেছেন, গত সপ্তাহেই বস্টনে এই চার ছানার জন্ম হয়েছে। তবে তাদের জন্মের পরই অজানা কোনও কারণে মা রাজহাঁসের মৃত্যু হয়। ডুবে মারা যায় একটি ছানাও। আর একটিকে কোনোমতে উদ্ধার করে বস্টনের প্রাণী সুরক্ষা বিভাগ। তারপর থেকে ছেলেমেয়েদের খেয়াল রাখার দায়িত্ব নিয়েছে একলা বাবা রাজহাঁসই।

বাবা রাজহাঁস যে নিজেই ছানাদের যত্ন-আত্তি করার দায়িত্ব নিয়েছে, সে খবর প্রাণী সুরক্ষা বিভাগের কাছেই পেয়েছিলেন ম্যাথু। সেই থেকেই পরিবারটিকে ক্যামেরা বন্দি করার চেষ্টা করছিলেন তিনি। বাবার পিঠে চড়ে হ্রদের জলে রাজহাঁস ছানাদের সফরের সেই দৃশ্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়তে বিশেষ সময় নেয়নি। সূত্র : এবিপি


জুমবাংলানিউজ/এসআই