in

মৃদু উপসর্গের করোনা রোগীদের জন্য হোটেল ভাড়ার চিন্তা সরকারের

জুমবাংলা ডেস্ক : মৃদু উপসর্গের করোনা রোগীদের চিকিৎসার জন্য আলাদা হোটেল ভাড়া নেওয়ার চিন্তা করছে সরকার। এসব হোটেলে চিকিৎসক, নার্স থাকবেন এবং রোগীদের ওষুধপত্র দেওয়া হবে। অক্সিজেনের ব্যবস্থাও রাখা হবে।

করোনার সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে মঙ্গলবার সচিবালয়ে আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা শেষে সাংবাদিকদের স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক এসব তথ্য জানিয়েছেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘হাসপাতালগুলোতে এখন প্রায় ৯০ শতাংশ শয্যা পূর্ণ। এজন্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে ৫০০ থেকে ৬০০ শয্যার একটি ফিল্ড হাসপাতাল তৈরি করা হচ্ছে। এটি পর্যায়ক্রমে এক হাজার শয্যায় উন্নীত করা যাবে। এছাড়া মৃদু উপসর্গের রোগীদের চিকিৎসার জন্য আলাদা হোটেল ভাড়া নেওয়ার চিন্তা করা হয়েছে।’

মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে চলমান কঠোর লকডাউন ১০ আগস্ট পর্যন্ত বাড়ানোর এবং ১১ আগস্ট থেকে গণপরিবহন, দোকানপাট, অফিসসহ সবকিছু সীমিত পরিসরে খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়।

বৈঠকে ৭ থেকে ১৪ আগস্ট পর্যন্ত ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড পর্যায়ে ১৪ হাজার কেন্দ্রে একযোগে করোনার টিকা দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। এতে বয়স্ক মানুষ অগ্রাধিকার পাবেন। একই সঙ্গে শ্রমজীবী মানুষ, দোকানদার, গণপরিবহনের কর্মীদের নিজ নিজ ওয়ার্ড থেকে টিকা নিতে হবে। টিকা না নিয়ে কেউ কর্মস্থলে আসতে পারবেন না।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘সরকারের হাতে এখন প্রায় সোয়া কোটি টিকা আছে। এই মাসে আরও প্রায় এক কোটি টিকা এসে পৌঁছাবে। স্থানীয়ভাবেও টিকা উৎপাদনের ওপর জোর দেওয়া হয়েছে। ইতিমধ্যে চীনের সিনোফার্মের সঙ্গে বাংলাদেশের একটি কোম্পানি মিলে স্থানীয়ভাবে টিকা উৎপাদনের কাজ অনেক দূর এগিয়ে গেছে।’

অনলাইনে খুব সহজে টাকা ইনকাম করার উপায়