মোসাদ্দেকের বিদায়, ব্যাটিং বিপর্যয়ে বাংলাদেশ

স্পোর্টস ডেস্ক : জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডেতে ব্যাট করছে বাংলাদেশ। এ ম্যাচে টস জিতে জিম্বাবুয়ের অধিনায়ক ব্রেন্ডন টেইলর বাংলাদেশকে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। শুক্রবার (১৬ জুলাই) হারারেতে বাংলাদেশ সময় দুপুর দেড়টায় ম্যাচটি শুরু হয়েছে।

প্রথমে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই তামিম ইকবালকে হারাল বাংলাদেশ। তৃতীয় ওভারের প্রথম বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দেন তিনি। পেসার মুজারাবানির লাফিয়ে উঠা বলে কাট করতে গিয়ে ক্যাচ দেন তামিম। বিদায়ের আগে ৭ বল খেললেও কোনও রান করতে পারেননি বাংলাদেশের অধিনায়ক। এমনকি, প্রথম দুই ওভারে বাংলাদেশ কোনো রান তুলতে পারেনি।

তৃতীয় ওভারের প্রথম বলে তামিমের উইকেট হারিয়ে ব্যাকফুটে চলে যায় বাংলাদেশ। তামিম সাজঘরে ফিরলে ব্যাটিংয়ে নামেন সাকিব আল হাসান। চার মেরে রানের খাতা খুললেও সাকিবের ব্যাটিংয়ে ছন্দ ছিলো না। ফর্মে না থাকায় দ্রুত রান তুলতে চাচ্ছিলেন। তাতেই বিপদ ডেকে আনলেন। নবম ওভারে মুজারাবানিকে বাউন্ডারি হাঁকাতে গিয়ে ক্যাচ দেন তিনি। ১৯ রানে সাজঘরে ফিরে যান সাকিব। বাংলাদেশ হারায় দ্বিতীয় উইকেট।
সাকিবের আউটের পর চার বাউন্ডারিতে দ্রুত রান তুলতে শুরু করেন মোহাম্মদ মিঠুন। এর আগেও বিদেশের মাটিতে দলকে খাদের কিনারা থেকে উদ্ধার করেছেন তিনি। কিন্তু ১৯ রানেই শেষ হয়ে যায় তার লড়াই। চাতারার অফস্টাম্পের বাইরের বলে আলগা শট খেলে উইকেটের পেছনে মিঠুন ক্যাচ দেন। দলীয় ৫৭ রানেই ৩ উইকেট হারায় বাংলাদেশ।

মোহাম্মদ মিঠুনের বিদায়ের হতাশ করলেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। প্রস্তুতি ম্যাচে রান পেলেও মূল মঞ্চে রান পেলেন না তিনি। ১৫ বলে ৫ রান করে বিদায় নেন তিনি। বাঁহাতি পেসার রিচার্ড নাগারাবার অফস্টাম্পের এক হাত বাইরের বলে ব্যাট চালাতে গিয়ে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দেন। ৭৪ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে ব্যাটিং বিপর্যয়ে বাংলাদেশ।

উল্লেখ্য, শেষ ১৬ ওয়ানডেতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে কোনো ম্যাচ হারেনি বাংলাদেশ। তবে এই ১৬টি ম্যাচই বাংলাদেশ খেলেছে দেশের মাটিতে। এবার হারারেতে কঠিন পরীক্ষা দিতে হবে বাংলাদেশ। এদিকে পরিসংখ্যান বলছে, হারারেতে এর আগে ২০১১ সালে তিন ওয়ানডে খেলেছিল বাংলাদেশ। বাংলাদেশ ম্যাচ হেরেছিল সবকয়টি। শুক্রবার (১৬ জুলাই) হারারেতে বাংলাদেশ জয়ের খাতা খুলতে পারে কিনা সেটাই দেখার বিষয়।


জুমবাংলানিউজ/এসআর