in

‘যুবদল নেতার তথ্যেই উত্তরায় ৩১টি বোমা উদ্ধার’


জুমবাংলা ডেস্ক : রাজধানীর উত্তরার ১০ নম্বর সেক্টরের কামারপাড়া এলাকার ১৩ নম্বর রোডের পাশে নির্মাণাধীন একটি ভবন থেকে ৩১টির মতো অবিস্ফোরিত হাত বোমা উদ্ধার করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ। ভবনের ভেতর প্রবেশ করে এখন পর্যন্ত ১৩টি বোমা নিস্ক্রিয় করেছে বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট। বিকট শব্দের বোমা বিস্ফোরণে আশেপাশে আতংক ছড়িয়ে পড়ে। পরে বাকি বোমাগুলো নিরাপদে সরিয়ে আনার চেষ্টা করা হচ্ছে।

শুক্রবার (২০ নভেম্বর) রাতে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা প্রধান (ডিবি) অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার এ কে এম হাফিজ আক্তার সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘উত্তরা পশ্চিম থানা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক মাসুম এবং যুবদলের অন্য আরেক নেতা সোহেলকে উপ-নির্বাচনে ককটেল বিস্ফোরণের দায়ে গ্রেফতার করা হয়। তাদের দেওয়া তথ্যমতে এখানে অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযানে নির্মাণাধীন এই ভবন থেকে ৩১টি হাতবোমা উদ্ধার করা হয় এবং ১৩টি বোমা নিষ্ক্রিয় করা হয়। এছাড়া এখানে বোমা তৈরির অনেক সরঞ্জাম পাওয়া যায়। মূলত ঢাকা ১৮ আসনের উপনির্বাচন প্রশ্নবিদ্ধ করতে নাশকতার উদ্দেশ্যে হাতবোমাগুলো রাখা হয়েছিল।’

ঢাকা মহানগর উত্তর গোয়েন্দা বিভাগের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (ডিসি) লাকি আক্তার বলেন, ‘নির্মাণাধীন ভবনটিতে অবিস্ফোরিত ৩১টির মতো হাত বোমা ও বোমা তৈরির সরঞ্জাম পাওয়া গেছে। বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট কাজ করছে। ইতোমধ্যে ১৩টির মতো নিষ্ক্রিয় করা হয়েছে। সেখানে ডিবির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা আছেন। তারা পরে এ বিষয়ে কথা বলবেন।’

উত্তরায় বোমা উদ্ধার, ঘটনাস্থলে বোম ডিসপোজাল ইউনিট
ঘটনাস্থলে অবিস্ফোরিত বেশ কয়েকটি বোমা রয়েছে এমন খবরে পুলিশের গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) ও উত্তরা পশ্চিম থানা পুলিশ বাড়িটির ঘিরে রেখেছে। আশেপাশের রাস্তাগুলোও বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। পাশের বাসাগুলো থেকে কাউকে ভেতরে বা বাইরে যেতে দিচ্ছে না পুলিশ।

জানা যায়, ঢাকা-১৮ আসনের উপনির্বাচনে ভোটগ্রহণের দিন ওই এলাকায় চারটি বোমা বিস্ফোরিত হয়েছিল। ওই ঘটনায় বেশ কয়েকজনকে গ্রেফতার করা হয়। তাদের দেওয়া তথ্যমতে আবার অভিযান চালিয়ে ওই বাসায় মজুদ থাকা অবিস্ফোরিত বোমাগুলো উদ্ধার করা হয়েছে।